President

কানডার টরন্টো সিটির ডেল্টা হোটেলে ১৬ ও ১৭ সেপ্টেম্বর অনুষ্ঠিত হবে ‘ফোবানা কনভেনশন’। এ উপলক্ষে সকল প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে বলে জানিয়েছেন ‘ফোবানা’র স্টিয়ারিং কমিটির মহাসচিব কাজী আজম।

রোববার সন্ধ্যায় নিউইয়র্ক সিটির জ্যাকসন হাইটসে একটি পার্টি সেন্টারে ‘মীট দ্য প্রেস’ অনুষ্ঠানে কাজী আজম আরও বলেন, ‘ঐক্যবদ্ধ কমিউনিটি নির্মাণে ফোবানার গুরুত্ব অপরিসীম। এজন্যে সর্বত্র ভিন্ন এক আমেজ তৈরি হয়েছে। ’

স্টিয়ারিং কমিটির সাবেক চেয়ারম্যান আতিকুর রহমান সালু বলেন, ‘১৯৮৭ সাল থেকেই ফোবানার বাংলাদেশ সম্মেলন হয়েছে সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহে ‘লেবার ডে উইকেন্ডে’। এবার সেই উইকেন্ডে ঈদুল আজহা হওয়ায় আমরা সম্মেলন পিছিয়ে ১৬-১৭ সেপ্টেম্বর নির্ধারণ করেছি। ’

স্টিয়ারিং কমিটির আরেক সদস্য আলী ইমাম বলেন, ‘যুক্তরাষ্ট্র থেকে বিপুলসংখ্যক প্রবাসী যাবেন কানাডায় অনুষ্ঠেয় এই সম্মেলনে অংশ নিতে। নিউইয়র্ক থেকে অর্ধ শতাধিক সদস্যের একটি টিম যাচ্ছে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

সাবেক চেয়ারম্যান মোহাম্মদ হোসেন খান বলেন, ‘যে চেতনায় ১৯৮৭ সালে যাত্রা শুরু, সেই ঐক্যের প্রশ্নে আমরা সব সময়ই সচেষ্ট রয়েছি। আমরা কখনোই ফোবানার বিভক্তি চাই না। কিন্তু অন্যদেরকেও তো ছাড় দেয়ার মনোভাব থাকতে হবে। ’

উল্লেখ্য, এবারও ফোবানার ব্যানারে আরেকটি বাংলাদেশ সম্মেলন হবে ফ্লোরিডার মায়ামী সিটিতে অক্টোবরের ৬-৮ তারিখে। সে প্রস্তুতিও চলছে পুরোদমে। মায়ামীর সম্মেলনে বাংলাদেশের শীর্ষ স্থানীয় রাজনীতিক, সাংবাদিক, লেখক, সাহিত্যিক, অভিনেতা, কণ্ঠশিল্পীরা আসবেন বলে আয়োজকরা জানিয়েছেন।

অপরদিকে, কানাডার টরন্টো সিটির এই সম্মেলনেও বাংলাদেশের প্রখ্যাত শিল্পীরাও আসছেন বলে জানানো হয়। এই ‘মীট দ্য প্রেস’ অনুষ্ঠানে ফোবানার স্টিয়ারিং কমিটির প্রভাবশালী সদস্য ও বাংলাদেশ সোসাইটির বোর্ড অব ট্রাস্টির মেম্বার অধ্যাপক দেলোয়ার হোসেন, মিরসরাই সমিতির সভাপতি ও সমাজকর্মী কাজী নয়নও ফোবানার অগ্রগতির আলোকে কথা বলেন। তারা উভয়ে বলেন, ‘জাতীয় এবং কমিউনিটির স্বার্থে ফোবানার ঐক্য জরুরি। আশা করছি, সংশ্লিষ্ট সকলে ঐক্যের ব্যাপারে আরো উদার হবেন।

এদিকে, এই মীট দ্য প্রেস’র আয়োজকদের উদ্দেশ্যে মায়ামীতে অনুষ্ঠেয় ফোবানার নির্বাহী কমিটির যুগ্ম মহাসচিব জাকারিয়া চৌধুরী এ সংবাদদাতাকে বলেন, ‘আইনগত দূরের কথা, নৈতিক অধিকারও নেই অন্য কারোর ফোবানা নাম ব্যবহার করার। কারণ, আমরা ফোবানার ট্রেড মার্ক রেজিস্ট্রেশন করেছি মার্কিন প্রশাসনে। তাই, সকলের প্রতি আমাদের উদাত্ত আহবান হচ্ছে, মায়ামীর সম্মেলনে অংশ নেয়ার জন্য। তাহলেই কমিউনিটির অনৈক্য কেটে যাবে। কারণ, ফোবানাকে যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার প্রবাসীদের মহামিলন মেলায় পরিণত করতে চাই আমরা। ’

২৮ আগষ্ট, ২০১৭ ১১:৪৩ এ.ম