President

ব্যবহারকারিদের রক্তদানে উৎসাহিত করতে বাংলাদেশে নতুন একটি ফিচার চালু করেছে ফেসবুক। মঙ্গলবার থেকে চালু হওয়া নতুন এই ফিচার প্রয়োজনের সময়ে সাধারণ মানুষ ও বিভিন্ন সংস্থাকে সাহায্য করবে।

ফেসবুক মনে করে, পৃথিবীর অনেক দেশের মতো বাংলাদেশেও নিরাপদ রক্তের অভাব রয়েছে। সব ক্ষেত্রে হাসপাতাল বা ব্লাড ব্যাংকে থাকা রক্ত নিরাপদ হয় না। এই অভাব পূরণের জন্য রোগী ও তার আত্মীয়স্বজনদের প্রায়শই কোনো না কোনো রক্তদাতার খোঁজ করতে হয় যা, জরুরি মুহূর্তে রোগী ও তার আত্মীয়দের জন্য দুশ্চিন্তার প্রধান কারণ হয়ে দাঁড়ায়। এসব ক্ষেত্রে সাধারণ মানুষ ফেসবুকসহ আরও অনেক মাধ্যমের সাহায্য নিয়ে থাকেন।


এই দুশ্চিন্তা দূর করতে ফেসবুক সাহায্য করবে। রক্তদাতা, সাধারণ মানুষ ও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানগুলোকে একত্রে একই প্লাটফর্মের আওতায় আনতে ফেসবুক নিয়ে এসেছে নতুন এই ফিচার। ফিচারটি প্রস্তুত করার সময় বিভিন্ন এনজিও, স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞ, রক্তদাতা এবং ফেসবুকের মাধ্যমে রক্তদাতার সন্ধান করেছেন এমন ব্যক্তিদের পরামর্শ নিয়ে কাজ করা হয়েছে। কিছুদিন আগে একই ধরনের একটি ফিচার ভারতেও চালু করা হয়েছে। ইতোমধ্যে সেখানে ৬০ লাখেরও বেশি মানুষ ফেসবুকের রক্তদাতা ফিচারের সাথে যুক্ত হয়েছেন।

রক্তদানের পদ্ধতি সহজ করা
বাংলাদেশের ফেসবুক ব্যবহারকারীরা মঙ্গলবার থেকে রক্তদাতা হিসেবে সাইন-আপ করতে পারবেন। সাইন-আপ করতে ভিজিট করুন facebook.com/donateblood ঠিকানায়। রক্তদাতাদের অংশগ্রহণে আগ্রহী করতে তাদের নিউজ ফিডে একটি ম্যাসেজ দেখানো হবে অথবা তারা নিজেদের প্রোফাইল এডিট করে সাইন-আপ করতে পারবেন। ‘অনলি মি’ অপশনটি সিলেক্ট করে আপনার সব তথ্য গোপন রাখতে পারবেন। আবার চাইলে আপনার রক্ত দান করার পরিসংখ্যান সবার সাথে শেয়ারও করতে পারবেন। অ্যান্ড্রয়েড, আইওএস এবং কম্পিউটার ব্যবহারকারীরা এই ফিচারটি উপভোগ করতে পারবেন।

যোগাযোগের মাধ্যম
পরবর্তী কয়েক সপ্তাহ সাধারণ মানুষ, ব্লাড ব্যাংক ও হাসপাতালসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানকে আরও সহজে ফেসবুকের রক্তদাতাদের সাথে যোগাযোগ করিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করা হবে।

# যখন কোনো ব্যক্তি রক্তের সন্ধান করবেন তখন তিনি ফেসবুকে স্পেশাল পোস্ট তৈরি করে সবার সাথে শেয়ার করতে পারবেন। স্বয়ংক্রিয়ভাবে ফেসবুক থেকে একটি নোটিফিকেশন কাছাকাছি থাকা রক্তদাতার কাছে পৌঁছে যাবে। রক্তদাতা পোস্টটি দেখার পর যদি রক্তদানে আগ্রহী থাকেন তাহলে তিনি সরাসরি অনুরোধকারীর সাথে যোগাযোগ করতে পারবেন। যতোক্ষণ পর্যন্ত রক্তদাতা স্বেচ্ছায় তার সম্পর্কিত তথ্য অনুরোধকারীর সাথে শেয়ার না করছেন ততোক্ষণ পর্যন্ত অনুরোধকারী রক্তদাতার সম্বন্ধে কোনো তথ্য জানতে পারবেন না।

#বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান যখন বাংলাদেশে কোনো ব্লাড ক্যাম্প ইভেন্ট করবে তখন তারা ফেসবুকে ইভেন্ট সম্পর্কে পোস্ট তৈরি করতে পারবেন এবং একটি নোটিফিকেশনের মাধ্যমে কাছাকাছি থাকা রক্তদাতাদের ইভেন্ট সম্পর্কে অবগত করতে পারবেন। ইভেন্ট সম্পর্কে জানার পর রক্তদাতা সেখানে যেতে ইচ্ছুক কি না সেই অপশনটি সিলেক্ট করতে পারবেন।

সচেতনতা এবং রক্তদাতার সংখ্যা বৃদ্ধির মাধ্যমে আমরা বাংলাদেশের সাধারণ মানুষ এবং প্রতিষ্ঠানগুলোর রক্তদান ও রক্তগ্রহণের ব্যবস্থা আরও সহজ করতে পারবো বলে আশা করছে ফেসবুক।

তথ্য সহায়তায়: হেমা বুদারাজু, প্রোডাক্ট ম্যানেজার, হেলথ্ এবং রিতেশ মেহ্তা, হেড অব প্রোগ্রামস্, সাউথ এশিয়া, ফেসবুক

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/ এইচ কে/এস আর

২৩ জানুয়ারী, ২০১৮ ১২:২৬ পি.এম