President

গাছ থেকে নামানো খেজুরের কাচা রস। সঙ্গে খই-মুড়ি আর খেজুরের গুড়। গ্রাম বাংলার চিরায়ত এই রূপ এবার ধরা দিলো খোদ রাজধানীতেই। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলায় 'রঙ্গে ভরা বঙ্গ'র উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হলো সপ্তম 'রসের মেলা'। অনেকদিন পর শহুরে পরিবেশে গ্রামীণ আবহের ছোঁয়া পেয়ে আনন্দে ভাসেন নগরবাসী।

কুয়াশা ভেজা মাঘের স্নিগ্ধ ভোর। কাঁধে খেজুরের রসভর্তি মাটির হাড়িতে ঝুলিয়ে ছুটে চলেছেন গাছি। বেলা বাড়ার আগেই ঘরে ঘরে রস পৌঁছে দেয়ার গ্রাম বাংলার চিরায়ত এই দৃশ্যের দেখা মিললো এবার ইট-পাথরের রাজধানীতে।

শুক্রবার সকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের চারুকলার বকুলতলায় রস মেলার আয়োজন করে 'রঙ্গে ভরা বঙ্গ'। তাইতো গ্রাম-বাংলার চিরন্তন সংস্কৃতির পরশ নিতে ভোরের সূর্য ওঠার সঙ্গে সঙ্গে পরিবার-পরিজন নিয়ে মেলায় ছুটে আসেন অনেকেই। শীতের ভোরে তাজা খেজুরের রস পানের নির্মল আনন্দে ভাসের রসের রসিকরা। সঙ্গে ছিল চিড়া, মুড়ি, খই আর খেজুরের গুড়ের স্বাদ নেয়ার সুযোগ। রসিকের নির্মল-উচ্ছ্বসিত রসআড্ডায় উঠে আসে ফেলে আসা গ্রামীণ স্মৃতিময়তা।

মেলায় বাড়তি আকর্ষণ হিসেবে ছিলো বয়াতি গান। দেশীয় বাদ্যযন্ত্রের তালে জনি বয়াতি ও মালেক সরকারের গান কিছু সময়ের জন্য হলেও নগরবাসীকে ফিরিয়ে নিয়ে যায় চিরচেনা গ্রামীণ পরিবেশে। গ্রাম বাংলার হাজার বছরের লোকাচার ও সংস্কৃতি বাঁচিয়ে রাখতেই এই আয়োজন।

দেশের যেকোনো সংকট-সমস্যায় বাঙালির চিরায়ত রসবোধই পারে মুক্তি দিতে। আগামীতে আরো বড় পরিসরে রস উৎসবের আয়োজনের কথাও জানান আয়োজকরা।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/ এইচ কে/এস আর

২০ জানুয়ারী, ২০১৮ ০০:৪৪ এ.ম