President

বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, সরকারের সঙ্গে যোগসাজশ করে ঢাকা উত্তর সিটির নির্বাচন বন্ধ করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। দেশ এখন বড় ধরনের সংকটে পড়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।


শুক্রবার সকালে শেরেবাংলা নগরে জিয়াউর রহমানের মাজারে শ্রদ্ধা নিবেদনের আগে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা বলেন।

এক প্রশ্নের জবাবে ফখরুল বলেন, ‘ঢাকা উত্তর সিটি নির্বাচন স্থগিতের ব্যাপারে কে রিট করেছে সেটি বড় কথা নয়। মামলা কেন হয়েছে এবং কেন স্থগিত হল সেটিই বড় কথা’।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, ‘নতুন ইউনিয়নগুলোতে সীমানা নির্ধারণ করা হয়নি। ভোটার তালিকাও করা হয়নি। ফলে নির্বাচন স্থগিত হয়েছে। এটি নির্বাচন কমিশনের সম্পূর্ণ ব্যর্থতা। এতে প্রমাণিত হয়- নির্বাচন কমিশন সরকারের আইন মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে যোগসাজশ করে এ কাজটা করেছে। কারণ এটি আইন মন্ত্রণালয়ের কাজ। সরকার যেহেতু ভালো করে জানে সিটি নির্বাচন সুষ্ঠু হলে তাতে পরাজয় হবে। তাই যোগসাজশ করে এই রিটটি করা হয়েছে’।

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে মুক্ত রেখে, সব দলকে সুযোগ দিয়ে নির্বাচন না করলে নির্বাচন হবে না বলেও মন্তব্য করেন ফখরুল।

একই সঙ্গে তিনি জাতীয় নির্বাচন সামনে রেখে আলোচনা ও সমঝোতা না করলে এবং নির্বাচনকালীন সমান্তরাল মাঠ তৈরি না থাকলে নির্বাচন হবে না হওয়ার ইঙ্গিত দেন।

এর আগে বেলা ১১টার পর বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা শহীদ রাষ্ট্রপতি জিয়াউর রহমানের ৮২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া কয়েক হাজার নেতাকর্মী নিয়ে জিয়ার মাজারে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। পরে তার রুহের মাগফিরাত কামনা করে দোয়া করেন।

এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন, ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ, মির্জা আব্বাস, ড. মঈন খান, নজরুল ইসলাম খান, সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী, ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আমান উল্লাহ আমান, সাংগঠনিক সম্পাদক রুহুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু প্রমুখ।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/ এইচ কে/এস আর

১৯ জানুয়ারী, ২০১৮ ১৪:১২ পি.এম