President

টঙ্গীতে বিশ্ব ইজতেমায় ভারতের তবলিগ জামাতের মুরুব্বি মাওলানা সাদ কান্ধলভীর আগমন ঠেকাতে বিমানবন্দর এলাকায় বিক্ষোভ করছেন মুসল্লিরা। আজ বুধবার বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বিক্ষোভকারীদের ঢল নামায় বিমানবন্দর থেকে উত্তরা পর্যন্ত সড়কে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়েছে।
বুধবার সকাল থেকে বিমানবন্দরের অদূরে ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের বায়তুস সালাম জামে মসজিদ সংলগ্ন চত্বরে এ বিক্ষোভ চলছে।

শাহজালাল বিমানবন্দর থানার ওসি নূরে আযম সিদ্দিকী জানান, বিমানবন্দর গোলচত্বর এলাকায় বিক্ষোভ ও সমাবেশ করছেন তাবলিগ জামাতের মুসল্লিরা। মাওলানা সাদ কান্ধলভীকে যেন বাংলাদেশে আসতে দেওয়া না হয় সেজন্য তারা বিক্ষোভ করছেন এবং স্লোগান দিচ্ছেন।
তিনি বলেন, ‌‘মাওলানা সাদ কান্ধলভী আজ বেলা সাড়ে ১২টায় বাংলাদেশে আসার কথা রয়েছে। সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আমরা তাকে নিরাপদে গন্তব্যে পৌঁছে দেব।’
বিতর্কিত ও আপত্তিকর মন্তব্যের কারণে বাংলাদেশসহ সারা বিশ্বের অন্যতম আলেমগণ মাওলানা সাদ কান্ধলভীকে তাবলিগ জামাতের ৫৩তম বিশ্ব ইজতেমায় না আসার আহ্বান জানায়।
উল্লেখ্য, ‘তবলিগ করা ছাড়া কেউ বেহেশতে যেতে পারবে না’ - মাওলানা সাদ এই বক্তব্য দেওয়ায় তার বিরুদ্ধে অবস্থান নেয় ভারতের দারুল উলুম দেওবন্দ মাদ্রাসা। সেখান থেকে মাওলানা সাদকে এ বক্তব্য প্রত্যাহারের আহ্বান জানানো হয়। কিন্তু তিনি উল্টো যুক্তি দেন। এ নিয়ে মাওলানা সাদের বিরুদ্ধে সমালোচনার ঝড় ওঠে।
এক পর্যায়ে সাদের বিরুদ্ধে অবস্থান নেন দেওবন্দ মাদ্রাসার অনুসারী বাংলাদেশের আলেমরা। তারা তাকে টঙ্গীতে বিশ্ব ইজতেমায় আসতে না দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন। তবলিগ জামাতের বাংলাদেশ শাখার ১১ শূরা সদস্যের মধ্যে ছয়জনই আলেমদের এ সিদ্ধান্তকে সমর্থন করেন।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/ এইচ কে/এস আর

১০ জানুয়ারী, ২০১৮ ১৪:৩১ পি.এম