President

দেশের অভ্যন্তরীণ রাজনীতিতে আওয়ামী লীগ-বিএনপির মুখোমুখি অবস্থানের সমালোচনা করেছেন সাবেক রাষ্ট্রপতি ও জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।


মঙ্গলবার দুপুরে ইন্সটিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স মিলনায়তনে জাতীয় পার্টির যৌথসভায় এসব কথা বলেন তিনি।

এরশাদ বলেন, ৩০০ আসনে প্রার্থী দেওয়ার ক্ষমতা জাতীয় পার্টির আছে। এটিই আমার জীবনের শেষ নির্বাচন। মরার আগে জাতীয় পার্টিকে ক্ষমতায় রেখে যেতে চাই।

তিনি বলেন, ‘বর্তমানে দেশের অবস্থা ভালো নয়। আমার ধারণা, সামনে অস্থিতিশীল পরিস্থিতির সৃষ্টি হতে পারে। আওয়ামী লীগ ও বিএনপির কাছে এ দেশের মানুষ নিরাপদ নয়। শুধু দেশের মানুষ নয়, এরা একদল আরেক দলের কাছে নিরাপদ নয়। আমাদের কাছে বিএনপি, আওয়ামী লীগ ও দেশের মানুষ সবাই নিরাপদ।’

এরশাদ বলেন, ‘জাতীয় পার্টি কোনো খেলনা নয়। আমাদের ছাড়া আগামী নির্বাচনে কোনো দল ক্ষমতায় যেতে পারবে না।’

সভায় উপস্থিত নেতাদের সাংগঠনিক শক্তি বৃদ্ধি করার পরামর্শ দিয়ে তিনি বলেন, ‘আমাদের দলের আরও সাংগঠনিক শক্তি বৃদ্ধি করতে হবে। কারণ দুর্বলের সঙ্গে কেউ হাত মেলায় না। শক্তি বৃদ্ধি পেলে সবাই আমাদের সঙ্গে জোট করতে এগিয়ে আসবে।’

আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারি ঢাকায় জাতীয় পার্টির মহাসমাবেশে ৫ লাখ লোকের সমাবেশ করে ক্ষমতার জানান দিতে হবে বলে মন্তব্য করেন তিনি।

খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে ৩৭ মামলা হয়েছে উল্লেখ করে এরশাদ বলেন, ‘আমার বিরুদ্ধে ৪২টি মামলা হয়েছিল। খালেদা জিয়ার এখনও ৫টা বাকি আছে।’

সভায় উপস্থিত ছিলেন জাতীয় পার্টির মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার, কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের, প্রেসিডিয়াম সদস্য কাজী ফিরোজ রশীদ, প্রেসিডিয়াম সদস্য জিয়াউদ্দিন বাবলু, বন ও পরিবেশমন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, শ্রম ও কর্মসংস্থানমন্ত্রী মুজিবুল হক চুন্নু, জাতীয় পার্টির ঢাকা মহানগর সদস্য ও সংসদ সদস্য সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা, সংসদ সদস্য ফখরুল ইমাম প্রমুখ।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/ এইচ কে/এস আর

০৯ জানুয়ারী, ২০১৮ ১৭:৩২ পি.এম