President

বিয়ে না করে ভালোই আছি, কিংবা বিয়ে করার আগেই ভালো ছিলাম- এসব যারা ভাবছেন তাদের বিষয়টা নতুন করে ভেবে দেখা দরকার। কারণ সাম্প্রতিক এক গবেষণা প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, বিবাহিতদের তুলনায় অবিবাহিত ও ডিভোর্সিদের হৃদরোগীদের হার্ট অ্যাটাকে মৃত্যুর আশঙ্কা বেশি।

আমেরিকান হার্ট রিসার্চ অ্যাসোসিয়েশনের জার্নালে সম্প্রতি এই রিপোর্ট প্রকাশিত হয়েছে। আটলান্টার এমোরি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর অব মেডিসিন আরসেদ কুউমির নেতৃত্বে ওই গবেষণা চালানো হয়। ওই প্রতিবেদন নিয়ে বিস্ময় প্রকাশ করে আরসেদ বলেন, বিবাহিত ও অবিবাহিত হৃদরোগীদের এই পার্থক্য দেখে আমিও বিস্মিত হয়ে যাই।

তার দাবি, বিয়ের ফলে যে সামাজিক সঙ্গ মেলে সেটা সম্ভবত এই পার্থক্যের বড় কারণ। ৬ হাজার ৫১ জন রোগীর ওপরে এ সমীক্ষা চালানো হয়। রোগীদের গড় বয়স ছিল ৬৩ বছর। দেখা গেছে, সুখী দাম্পত্যের মধ্যে কাটানো রোগীদের তুলনায় অবিবাহিত ও ডিভোর্সিদের মৃত্যুর আশঙ্কা অনেক বেশি।

প্রাপ্ত তথ্য বলছে, বিবাহিতদের তুলনায় অবিবাহিতদের যে কোনো রোগে মৃত্যুর আশঙ্কা ২৪ শতাংশ বেশি। আর হৃদরোগে মৃত্যুর আশঙ্কা ৪৫ শতাংশ। আর হার্টঅ্যাটাকে অবিবাহিতদের মৃত্যুর আশঙ্কা ৪০ শতাংশ বেশি। সূত্র: হেলথ.কম

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/ এইচ কে/এস আর

২১ ডিসেম্বর, ২০১৭ ১২:০২ পি.এম