President

রংপুর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের মেয়র ও কাউন্সিলর প্রার্থীদের জমা দেয়া হলফনামা সুষ্ঠু যাচাই-বাছাই করা হয়নি বলে অভিযোগ করেছে সুশাসনের জন্য নাগরিক (সুজন)।

সোমবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে এক সংবাদ সম্মেলনে এ দাবি করে সংস্থাটি।

এতে নির্বাচন কমিশনে রসিক প্রার্থীদের জমা দেয়া হলফনামার তথ্য তুলে ধরে বলা হয়, এসব তথ্যের বাইরেও প্রার্থীদের আরও সম্পত্তি রয়েছে।

বিশেষ করে ক্ষমতাসীন দলের মেয়র প্রার্থীর সম্পত্তি রয়েছে বলে জানায় সুজন।

সংবাদ সম্মেলনে সুজন সভাপতি হাফিজুদ্দিন আহমেদ, সম্পাদক ড. বদিউল আলম মজুমদার, নির্বাহী সদস্য সৈয়দ আবুল মকসুদ উপস্থিত ছিলেন।

সুজন সভাপতি হাফিজুদ্দিন বলেন, রসিক নির্বাচনের আগে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদকের বক্তব্য নির্বাচনের ওপর প্রভাব ফেলবে।

নির্বাচন কমিশনের আইনানুযায়ী, হলফনামায় দেয়া তথ্য অনুসন্ধান চালিয়ে বা অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে অনুসন্ধান করে ভুল তথ্য পাওয়া গেলে সংশ্লিষ্ট প্রার্থীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে পারবে নির্বাচন কমিশন।

উল্লেখ্য, কমিশনে জমা দেয়া হলফনামায় আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী সরফুদ্দীন আহমেদ বার্ষিক আয় দেখিয়েছেন ৪৫ লাখ ৯৩ হাজার ১৪০ টাকা। তার কোনো কৃষি জমি নেই।

বিএনপির মেয়র প্রার্থী কাওসার জামান বাবলার বার্ষিক আয় ১৫ লাখ ৫৪ হাজার টাকা। তার নিজ নামে স্ট্যান্ডার্ড ব্যাংকে ঋণ আছে ৮ কোটি এবং যৌথ নামে সোনালী ব্যাংকে ঋণ আছে ৪২ কোটি টাকা।

জাতীয় পার্টি মনোনীত মেয়র প্রার্থী মোস্তাফিজার রহমান মোস্তফার বার্ষিক আয় ৩ লাখ ৬৪ হাজার ২৭২ টাকা দেখানো হয়েছে। এছাড়া জনতা ব্যাংকে তার নামে ১৫ লাখ টাকা ঋণ আছে।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/ এইচ কে/এস আর

১৮ ডিসেম্বর, ২০১৭ ১৭:২৮ পি.এম