President

ফতুল্লা থানা বিএনপি নেতারা জানেনা বিজয় দিবস কবে,স্বাধীনতা দিবস কবে? মুর্খ ও ঘরমুখীদের নিয়ে ফতুল্লা থানা বিএনপির কমিটি গঠন করায় ইতিহাস খ্যাত দিবস গুলো কবে জানেনা বলে মনে করেন সাধারন নেতাকর্মীরা।
তাদের দাবী সরকারের দালাল ও এজেন্টরা টাকার বিনিময়ে পদ- পদবী নিয়ে দলের নাম ব্যবহার করে সুবিধা আদায়ে ব্যস্ত থাকে। তাই জাতীয় ও দলীয় কর্মসূচী এলে তড়িঘরি করে ব্যানার করে পালিত ক্যামেরাম্যান দিয়ে ছবি তুলে বিভিন্ন পত্রিকায় ছবি পাঠিয়ে থাকে।

তেমনি একটি ব্যানার উপহার দিয়েছে ফতুল্লা থানা বিএনপি। ৪৬ তম মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে বিজয় রেলীর আয়োজন করে নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপি। জেলা বিএনপির সিনিয়র সহ - সভাপতি ও ফতুল্লা থানা বিএনপি সভাপতি ঘরকুনো নেতা আলহাজ্ব শাহ আলমের অনুসারীরা বিশাল মিছিল সহকারে নারায়ণগঞ্জ প্রেসক্লাবের সামনে ব্যানার নিয়ে হাজির হয়। তাতে লেখা স্বাধীনতার ঘোষক জিয়া লও লও লও সালাম, বিজয়ের এই দিনে জিয়া তোমায় মনে পড়ে। ১৬ ই ডিসেম্বর মহান স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে বিজয় রেলী। ব্যানার দেখে অনেকে হতবাক হয়ে যান।প্রশ্ন তোলেন ফতুল্লা থানা বিএনপির নেতাদের শিক্ষাগত যোগ্যতার।

১৬ ডিসেম্বর হচ্ছে মহান বিজয় দিবস, ২৬ মার্চ হচ্ছে মহান স্বাধীনতা দিবস। বিজয় দিবসের ব্যানারে মহান স্বাধীনতা দিবস লিখে
মুক্তিযুদ্ধ নিয়ে রসিকতা করলো ফতুল্লা থানা বিএনপি মনে করে সাধারন মানুষ। এর আগে আলহাজ্ব শাহ আলমের অনুসারী বক্তাবলী ইউনিয়ন বিএনপি শহীদ দিবসের অনুস্ঠানে স্বাধীনতা দিবসের ব্যানার নিয়ে অনুস্ঠান করায় তীব্র সমালোচনার সৃস্টির সম্মুখীন হয়ে ছিল, এর আগে জিয়াউর রহমানের নামের পরে বীরউত্তম এর পরিবর্তে বীরউত্তর লিখে রাজনৈতিক মহলে তীব্র সমালোচনার জন্ম দেয় ঘরকুনো নেতা শাহ আলমের অনুসারীরা।

এ ব্যাপারে ফতুল্লা থানা বিএনপি সহ সভাপতি মোঃ ওমর আলী বলেন, এটা ভুল হয়েছে। এ ভুল কাম্য নয়।আগামীতে যেন না হয় সে দিকে খেয়াল রাখতে হবে। সহ সাংগঠনিক সম্পাদক এড আল আমিন সিদ্দিকী আগুন বলেন, যারা ব্যানার করেছে তাদের দোষ।তবে নেগেটিভ নয় পজেটিভ নিউজ করা উচিত। ফতুল্লা থানা বিএনপি সাধারন সম্পাদক ও উপজেলা চেয়ারম্যান এড আবুল কালাম আজাদ বিশ্বাস বলেন, ১৬ ডিসেম্বর মহান বিজয় দিবস, স্বাধীনতা দিবস লেখা ভুল হয়েছে বলে স্বীকার করেন।


টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/ এইচ কে/এস আর

১৭ ডিসেম্বর, ২০১৭ ১৭:২৯ পি.এম