President

সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় মহাত্মা গান্ধী হলে আন্তর্জাতিক গণহত্যা দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে সেকুলার ফোরাম অব সুইজারল্যান্ড আয়োজিত ক্রাইম এগেইনস্ট হিউম্যানিটি শীর্ষক আন্তর্জাতিক সেমিনারের আয়োজন করা হয়।

সেমিনারে মূল বক্তা ছিলেন ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির সভাপতি সাংবাদিক শাহরিয়ার কবির।
শাহরিয়ার কবির বলেন, বাংলাদেশের ১৯৭১ সালে সংঘটিত গণহত্যাকে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতির জন্য বিশ্ববাসীকে এগিয়ে আসতে হবে। ' সেমিনারে উপস্থিত আন্তর্জাতিক মানবাধিকারকর্মী ও সংস্থার প্রতি আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, 'নির্মমতা ও বর্বরতার উদাহরণ সংঘটিত হয়েছিল বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে যা নজিরবিহীন। ' তিনি বর্তমানে মিয়ানমারের রোহিঙ্গাদের প্রতি অত্যাচারের ঘটনায়ও তীব্র ক্ষোভ প্রকাশ করে বিশ্ববাসীকে রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়ানোর জন্য আহ্বান জানান।

ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শহীদকন্যা ডা. নুজহাত চৌধুরী বলেন, 'আমাদের সবাই মিলে ঐক্যবদ্ধ হয়ে বাংলাদেশের গণহত্যা সম্পর্কে জাতিসংঘের কাছে স্বীকৃতি আদায়ের চেষ্টা চালাতে হবে। গণহত্যার স্বীকৃতি আমাদের অধিকার। সুতরাং বাংলদেশের আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি কেবল সময়ের। '

সেকুলার ফোরাম অব সুইজারল্যাণ্ডের সভাপতি খলিলুর রহমান বলেন, 'শুধু কথায় নয় বিশ্বের সকল মানবাধিকার নেতৃত্ব ও সংগঠনকে মানবতার জন্য ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করা সময়ের সবচেয়ে বড় দাবি। বাংলাদেশে যেখানে নিরীহ ৩০ লক্ষ লোককে হত্যা হয়েছে সেখানে সময় লাগবে কেন গণহত্যাকে আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি দেওয়ার?'

ফোরাম অব সুইজারল্যাণ্ডের সভাপতি খলিলুর রহমানের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য দেন মানবাধিকারকর্মী ইতালির ফ্রান্সিসকা মারিনো, সুইজারল্যান্ডের আর্থ ফোকাস ফাউন্ডেশনের ভাইস প্রেসিডেন্ট নিকুলার সাফো, ড. কার্ল গুস্তাব, কেরল স্কলার, ইরিভান সাটিয়াগো , ড. লরেন সুবিলা, মনোজ কুরিয়ান, ঘাতক দালাল নির্মূল কমিটির কেন্দ্রীয় নেতা ডা. মামুন আল মাহতাব, সুইডেনের মুক্তিযোদ্ধা আখতারুজ্জামান, হল্যান্ডের বিকাশ চৌধুরী, ডেনমার্কের ডা. বিদ্যুৎ বড়ুয়া, বেলজিয়ামের এম মোর্শেদ, ফ্রান্সের উদয়ন বড়ুয়া, জেনেভার অরুন বড়ুয়া, লন্ডনের অজন্তা প্রমুখ।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/ এইচ কে/এস আর

১০ ডিসেম্বর, ২০১৭ ১১:২১ এ.ম