President

নিজস্ব বিবেচনায় বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি করেছে বাংলাদেশ অ্যানার্জি রেগুলেটরি কমিশন(বিইআরসি), এর সঙ্গে সরকারের কোনো সম্পর্ক নেই। বললেন প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানি উপদেষ্টা তৌফিক-ই-এলাহী চৌধুরী।
শুক্রবার সকালে বিদ্যুৎ ভবনে সেক্টর লিডারদের দুইদিনব্যাপী কর্মশালার উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ মন্তব্য করেন।
তৌফিক-ই-এলাহী চৌধুরী বলেন, বিদ্যুতের যে দাম বৃদ্ধি করা হয়েছে, আমি মনে করি এটি খুবই সামান্য এবং মামুলি ব্যাপার; জনজীবনে এর প্রভাব পড়বে বলে মনে করি না।


তিনি বলেন, বিদ্যুতের দাম বৃদ্ধি করা হলেও সরকারকে চার হাজার কোটি টাকার মতো ভর্তুকি দেয়া লাগবে। সরকার এটাকে ভর্তুকি বলে না, এটাকে বলা হয় মানুষের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে একটা বিনিয়োগ।
একই অনুষ্ঠান শেষে জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু বলেন, ২০০ ইউনিট পর্যন্ত ব্যবহারকারীদের এখন থেকে মাসে অতিরিক্ত ২০ থেকে ২৫ টাকা বিল দিতে হবে। এখন বিদ্যুতের যে দাম বৃদ্ধি হয়েছে তা গড়ে ৫ শতাংশের বেশি হবে না।


তিনি আরো বলেন, এটি খুব বেশি কিছু নয়। তবু হয়ত কিছুটা অ্যাফেক্ট পড়বে গ্রাহক পর্যায়ে। আমি মনে করি এটি সহনীয়।
গত বৃহস্পতিবার দুপুরে এক সংবাদ সম্মেলনে প্রতি ইউনিট বিদ্যুতের দাম গড়ে ৩৫ পয়সা বা ৫ দশমিক ৩ শতাংশ বৃদ্ধি করার সিদ্ধান্তের কথা জানায় বিইআরসি, যা আগামী ডিসেম্বর থেকে কার্যকর হবে।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/ এইচ কে/এস আর

২৪ নভেম্বর, ২০১৭ ১৯:৪৯ পি.এম