President

নওগাঁর রানীনগরে হাফেজ আবু হাসাস জিসান (১৮) নামে এক মাদ্রাসা ছাত্রের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার সকাল ৯টার দিকে উপজেলার বেতগাড়ী হাফেজিয়া মাদরাসার শ্রেণীকক্ষ থেকে ওই যুবকের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। ওই মাদরাসার চার ছাত্রকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসা হয়েছে।

জিসান গ্রামের ডা: বারিক হোসেনের ছেলে। এলাকাবাসী ও পরিবার সূত্রে জানা যায়, বাড়ির পাশেই মাদ্রাসা হওয়ায় প্রতিদিন রাতে ৮-৯টার দিকে বাড়িতে এসে খেয়ে শুয়ে পড়ত। কিন্তু সোমবার রাত ১০ টা পর্যন্ত সিজান বাড়িতে না আসায় মাদ্রাসাসহ বিভিন্ন স্থানে খোঁজ নিয়েও তাকে পাওয়া যায়নি। এছাড়া ওইদিন সন্ধ্যার দিকে মাদ্রাসায় উচ্চস্বরে তার পড়ার শব্দ অনেকেই শুনেছে। মঙ্গলবার সকালে মাদ্রাসার এক শ্রেণীকক্ষে তাকে ঝুলন্ত অবস্থায় দেখে সবাইকে জানায়। এরপর থানা পুলিশে সংবাদ দেয়া হলে তারা এসে লাশ উদ্ধার করে।

জিসানের মামা আব্দুর রশিদ বলেন, ঝুলন্ত অবস্থায় তার দুহাত পাঞ্জাবি দিয়ে বাঁধা ছিল। এছাড়া স্কাফ (মাথায় দেয়া কাপড়) দিয়ে শ্রেনীকক্ষের তীরের সাথে গলায় ফাঁস দিয়ে ঝুলানো ছিল। আমার ভাগ্নেকে পরিকল্পিত ভাবে হত্যা করা হয়েছে বলে তিনি দাবী করেন।

রানীনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এএসএম সিদ্দিকুর রহমান বলেন, লাশ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসা হয়। লাশের ময়না তদন্তের জন্য নওগাঁ সদর হাসপাতালে পাঠানো হবে। মাদরাসার চার ছাত্রকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। তদন্ত করে ঘটনার সম্পৃক্তদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।


টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/ এইচ কে/এস আর

২১ নভেম্বর, ২০১৭ ১৯:২১ পি.এম