President

রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে আয়োজিত নাগরিক সমাবেশে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইতিহাস বিকৃতিকারীদের বিষয়ে দেশবাসীকে জাগ্রত হওয়ার আহবান জানিয়ে বলেছেন, পাকিস্তানের প্রেতাত্মা, পাকিস্তানী হানাদার বাহিনীর পদলেহনকারী, তোষামোদকারীরা যাতে ইতিহাস বিকৃত করার আর সুযোগ না পায় সেজন্য সমগ্র দেশবাসীকে জাগ্রত হতে হবে।
তিনি বলেন, স্বাধীনতার স্বপক্ষের শক্তি ক্ষমতায় থাকলে দেশের, মানুষের যে উন্নতি হয় তা আমরা প্রমাণ করেছি। ২১বছর পর আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় আসার পরেই এদেশের মানুষের আর্থসামাজিক অবস্থার উন্নতি হয়েছে। যে দেশের মানুষকে ভিক্ষার ঝুলি দিয়ে দ্বারে দ্বারে ঘুরতে হতো। এখন আর ভিক্ষার ঝুলি নিয়ে ঘুরতে হয় না। এখন আমরা বাজেটের ৯৮ ভাগ নিজস্ব অর্থায়নে বাস্তবায়ন করতে পারি। সেই সক্ষমতা অর্জন হয়েছে।


বঙ্গবন্ধুর ঐতিহাসিক ৭ই মার্চের ভাষণকে ইউনেস্কো বিশ্ব ঐতিহ্যের প্রমাণ্য দলিল হিসেবে স্বীকৃতি দেয়ার উদযাপন হিসেবে নাগরিক সমাজের ব্যনারে আয়োজিত এ সমাবেশে আওয়ামী লীগ ও অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা অংশ নেন। বিশাল সমাবেশের উপস্থিতি উদ্যান ছাপিয়ে আশপাশের সড়কে ছড়িয়ে পড়ে। সমাবেশে নাগরিক সমাবেশের বিশিষ্ট ব্যক্তিরা বক্তব্য রাখেন।
প্রধানমন্ত্রী তার বক্তব্যে বলেন, যারা সারা জীবন বাঙালিকে একেবারে রাজনৈতিক, সামাজিক ও অর্থনৈতিকভাবে বঞ্চিত করে রেখেছিল। তারা পরাজিত শক্তি। আর আমরা হচ্ছি মুক্তিযুদ্ধে বিজয়ী শক্তি। বঙ্গবন্ধু চেয়েছিলেন, অর্থনৈতিক, সাংস্কৃতিক ও রাজনৈতিক মুক্তি নিয়ে আসতে। আমরা সেই অর্জনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছি।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/এ আর/এস আর

১৮ নভেম্বর, ২০১৭ ১৯:৫০ পি.এম