President

ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের অনুষ্ঠানস্থলের সামনে ময়লার স্তূপ রাখার পর এবার সরাসরি সংঘর্ষে জড়িয়েছে দলটির দুই গ্রুপ।

বৃহস্পতিবার বেলা ১২টার দিকে রাজধানীর আজিমপুরের পার্ল হারবার কমিউনিটি সেন্টারের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

এ সময় প্রায় আধা ঘণ্টা ধরে মারপিটের ঘটনা ঘটে। কমিউনিটি সেন্টারের সামনে থাকা ২০টির মতো মোটরসাইকেল ভাঙচুর ও তিনটিতে আগুন দেওয়া হয়। মোটরসাইকেলগুলো দুপক্ষের নেতাকর্মীদের বলে জানা গেছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, নির্ধারিত কর্মসূচি চলাকালেই ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ডিএসসিসি) মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন ও মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহ আলম মুরাদের অনুসারীরা জড়িয়ে পড়েন।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় পার্ল হারবার কমিউনিটি সেন্টারে সদস্য নবায়ন এবং প্রাথমিক সদস্য সংগ্রহ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিল লালবাগ থানা আওয়ামী লীগ।

এতে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক ডা. দীপু মনিকে প্রধান অতিথি এবং খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সভাপতি আবুল হাসনাত ও সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদকে বিশেষ অতিথি করা হয়।

এ অনুষ্ঠান ঘিরে বুধবার রাতে কমিউনিটি সেন্টারের সামনে দুই ট্রাক ময়লা এনে স্তূপ করে রাখা হয়।

এর পর সকালে একই স্থানে সভা ও মিছিলের চেষ্টা করে মেয়র খোকনের গ্রুপের লোকজন।

পুলিশ জানায়, সমাবেশের অনুমতি না থাকায় মেয়র গ্রুপকে সেখান থেকে সরিয়ে দেয়ার চেষ্টা করলে তারা পুলিশের ওপর চড়াও হয়। একপর্যায়ে তারা পুলিশকে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে।

পুলিশের লালবাগ বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) ইব্রাহিম খান বলেন, ‘একই স্থানে দুটি গ্রুপ সমাবেশ করতে চেয়েছিল। এতে উত্তেজনার সৃষ্টি হলে আমরা রাস্তায় থাকা গ্রুপটিকে সরিয়ে দিই। কারণ তাদের সমাবেশের কোনো অনুমতি ছিল না। এখন অবশ্য পরিস্থিতি অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে আছে। ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।’

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/এ আর/এস আর

১৬ নভেম্বর, ২০১৭ ১৫:৪২ পি.এম