President

ইরাক ও ইরানের সীমান্তবর্তী এলাকায় ৭ দশমিক ৩ মাত্রার এক ভয়াবহ ভূমিকম্পে কমপক্ষে একশ ৩৩ জন নিহত হয়েছেন। ইরানের পশ্চিমাঞ্চলীয় কেরমানশাহ প্রদেশের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, সেখানে কমপক্ষে একশ ২৯ জন নিহত হয়েছে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন আরো বহু লোক। খবর বিবিসি, সিএনএনের।
ইরাকে এ ঘটনায় কমপক্ষে চার জন নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। তবে হতাহতের সংখ্যা বাড়তে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে।


ভূমিকম্পের পর আতঙ্কিত মানুষজনকে রাস্তায় নেমে আসতে দেখা গেছে।
এ সময় ইরাকের রাজধানী বাগদাদের মসজিদগুলোতে দোয়া পড়তে শোনা গেছে।
ইরানের জরুরি ব্যবস্থার প্রধান পীর হুসেইন কুলিভান্ড বলেছেন, সেখানকার সারপোল-ই-জাহাব শহরেই বেশি হতাহতের ঘটনা ঘটেছে।
তিনি বলেছেন, ভূমিধসের কারণে উদ্ধার কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে।
ইরানে রেড ক্রিসেন্টের প্রধান মোরতেজা সেলিমকে উদ্ধৃতি করে দেশটির রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন বলছে, সেখানে কমপক্ষে আটটি গ্রাম ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।
সেলিম বলেন, ভূমিকম্পের পর অনেক গ্রামেই বিদ্যুৎ চলে যায়। আর বাধাগ্রস্ত হয়েছে টেলিযোগাযোগ ব্যবস্থাও।


মার্কিন ভূতাত্ত্বিক জরিপ (ইউএসজিএস) জানিয়েছে, ভূমিকম্পের উৎপত্তিস্থল ছিল ইরাকের হালাবজা এলাকা থেকে ৩০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে। যা ইরানের উত্তরপূর্বাঞ্চলীয় সীমান্তবর্তী এলাকার সঙ্গে অবস্থিত।
ভূমিকম্পের গভীরতা ছিল ৩৩ দশমিক নয় কিলোমিটার। কম্পনের মাত্রা এতো ছিল যে তুরস্ক, ইসরায়েল এবং কুয়েতেও সেটি অনুভূত হয়েছে।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/এ আর/এস আর

১৩ নভেম্বর, ২০১৭ ১০:৫৬ এ.ম