President

আট বছর বয়সী সাকিবকে গতকাল মঙ্গলবার থেকে পাওয়া যাচ্ছিল না। আজ বুধবার ওদেরই প্রতিবেশীর খাটের নিচ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে সাকিবের লাশ। অভিযোগ উঠেছে, সাকিবকে গতকাল গলা টিপে হত্যা করে খাটের নিচে রেখে দেয় প্রতিবেশী রিয়াজ (১৫)!

গাজীপুরের টঙ্গীর খাঁ পাড়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। নিহত সাকিব স্থানীয় ব্র্যাক স্কুলে দ্বিতীয় শ্রেণিতে পড়ত। সাকিব নেত্রকোনার মির্জাপুর এলাকার বাসিন্দা। পুলিশ রিয়াজকে আটক করেছে।

সাকিবের বাবা আলাল মিয়া বাদী হয়ে টঙ্গী থানায় মামলা করেছেন।

সাকিবের স্বজন ও স্থানীয় বাসিন্দাদের বরাত দিয়ে টঙ্গী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ফিরোজ তালুকদার জানান, গতকাল বেলা ১১টার দিকে সাকিব পাশের বাসার রিয়াজের রুমে যায়। সেখানে দীর্ঘ সময় বসে থাকার পর রিয়াজ সাকিবকে চলে যেতে বলে। কিন্তু সাকিব না যেতে চাইলে রিয়াজ সাকিবকে থাপ্পড় মেরে বাসা থেকে বের করে দেওয়ার কথা বলে। এতেও বের হয় না সাকিব। একপর্যায়ে সাকিবের গলা চেপে ধরে রিয়াজ। আর এতে ঘটনাস্থলেই মারা যায় সাকিব। পরে সাকিবের লাশ রিয়াজ নিজেই খাটের নিচে লুকিয়ে রাখে। এদিকে সাকিবকে না পেয়ে তার স্বজনরা এলাকায় মাইকিং ও খোঁজাখুঁজির পর আজ সকালে রিয়াজের খাটের নিচ থেকে লাশ উদ্ধার করে।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/এ আর/এস আর

০৮ নভেম্বর, ২০১৭ ১৭:২২ পি.এম