President

মুক্তমনা ব্লগের প্রতিষ্ঠাতা অভিজিৎ রায় হত্যার ঘটনায় অংশ নেওয়া পলাতক এক আসামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশের কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম (সিটিটিসি) ইউনিট। গ্রেফতার ব্যক্তির নাম আবু সিদ্দিক সোহেল ওরফে সাকিব, ওরফে সাজিদ, ওরফে শাহাদ (৩৪)। সে আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের সক্রিয় সদস্য। রবিবার (৬ নভেম্বর) রাতে রাজধানীর মোহাম্মদপুরের ইকবাল রোড থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। সিটিটিসির এডিসি জাহিদুল ইসলাম বাংলা ট্রিবিউনকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

এডিসি জাহিদুল বলেন, ‘২০১৫ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি অমর একুশে গ্রন্থমেলা থেকে ফেরার সময় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি এলাকায় হত্যা করা হয় অভিজিৎকে। ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিল আবু সিদ্দিক সোহেল। সেসময় সিসিটিভি ফুটেজ দেখে ছয় জনকে শনাক্ত করা হয়েছিল। সোহেল ওরফে সাকিব তাদের একজন। তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়েছে।’

সিটিটিসি জানিয়েছে, অভিজিৎ হত্যার ঘটনার সংশ্লিষ্ট সিসিটিভি ফুটেজ থেকে ছয় জনকে শনাক্ত করা হয়। গত বছরের ২১ আগস্ট আবু সিদ্দিক সোহেলসহ ওই ছয় জনের ছবি প্রকাশ করে তাদের ধরিয়ে দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছিল পুলিশ।
আবু সিদ্দিক সোহেলকে গ্রেফতারের মাধ্যমে এই প্রথম অভিজিৎ হত্যা মামলায় জড়িত কাউকে গ্রেফতার করলো পুলিশ। এই মামলার অন্যতম প্রধান আসামি শরীফুল ইসলাম ওরফে শরীফ ওরফে হাদী গত বছরের ১৯ জুন খিলগাঁওয়ে পুলিশের সঙ্গে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হয়।

এর আগে, অভিজিৎ হত্যাকাণ্ডে জড়িত সন্দেহে ফারাবী শফিউর রহমানসহ আট জনকে আটক করেছিল র‌্যাব। তবে তাদের কাছ থেকে অভিজিৎ হত্যা মামলা সংশ্লিষ্ট গুরুত্বপূর্ণ কোনও তথ্য পাওয়া যায়নি।
সিটিটিসির আরেক কর্মকর্তা জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সাকিব ওরফে সাজিদ অভিজিৎ হত্যাকাণ্ডে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের শীর্ষ নেতা ও সামরিক কমান্ডার মেজর জিয়ার নির্দেশে সে অভিজিত হত্যায় অংশ নিয়েছিল বলে জানিয়েছে।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/এ আর/এস আর

০৬ নভেম্বর, ২০১৭ ১৩:৪৬ পি.এম