President

কিশোরীবেলায় যৌন হয়রানির শিকার হন অনেক মেয়েই। অনেকেই বিষয়টি নিয়ে সামাজিক লজ্জার ভয়ে মুখ খুলতে পারেন না। সম্প্রতি হলিউডের এক প্রযোজকের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ প্রকাশ্যে আসার পর বিভিন্ন দেশের শোবিজ তারকারা মুখ খুলছেন। এবার মুখ খুললেন রবিশঙ্করের মেয়ে ও প্রখ্যাত সেতার বাদক আনুশকা শঙ্কর।
মাত্র ১৪ বছর বয়সে তার সঙ্গে ঘটেছিল সেই অপ্রীতিকর ঘটনা। বাড়িতেই এক শিক্ষক আসতেন তাকে গান শেখাতে। আনুশকা বলেন, ওই শিক্ষককে আমি ভীষণ শ্রদ্ধা করতাম। কিন্তু একদিন ওই শিক্ষক আমাকে বলেছিলেন, তার ঘরে গেলে তবেই তিনি আমাকে বিশেষ সুযোগ দেবেন।

আনুশকা বলেন, বাইরে থেকে আমার এই কষ্টটা কেউ বুঝতে পারেনি। চার বছর পর আমি প্রতিবাদ করেছিলাম। আমিই হয়তো প্রথম মেয়ে, যে তার নিজের শিশু বয়সে যৌন হেনস্তার অভিজ্ঞতা শেয়ার করেছিলাম এবং ভিডিও মারফত প্রতিবাদ করেছিলাম।
পরবর্তীতে নিউইয়র্কে থাকাকালীন একাধিকবার যৌন হেনস্তার শিকার হয়েছেন আনুশকা। তাদের পারিবারিক এক আত্মীয় নাকি তার যৌন নির্যাতনের কারণ হয়েছিলেন। নারী অধিকার সম্পর্কিত একটি অনুষ্ঠানে একথা জানান আনুশকা।

তিনি বলেন, এখন আমি প্রাপ্তবয়স্ক। আমি গানের দুনিয়ায় আছি। কাজের সূত্রে আমাকে দেশে-বিদেশে অনেক জায়গায় যেতে হয়। নাইট ক্লাবেও যেতে হয়। শুধুমাত্র রবিশঙ্করের মেয়ে বলেই আমাকে আলাদা করে নিরাপত্তা দেওয়া হয়। কিন্তু একবার ভাবুন তো, যদি আমার বাবা একজন সেলিব্রেটি না হতেন, আমি একজন সাধারণ ঘরের মেয়ে হতাম, তাহলে কি আমি এই নিরাপত্তা পেতাম?
আনুশকা শঙ্কর বলেন, একটা টুইট করে প্রতিবাদ জানালে চলবে না। সমাজে পরিবর্তন আনা প্রয়োজন। সেক্ষেত্রে সবার আগে প্রয়োজন মেয়েদেরকে সমাজ কী চোখে দেখবে। যে কোনো পেশা, যে কোনো ক্ষেত্রে মেয়েদের কতোটা সম্মান দেওয়া হবে তার উপর।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/এ আর/এস আর

০৬ নভেম্বর, ২০১৭ ১৩:৪১ পি.এম