President

হেমন্তের ঝিরিঝিরি বৃষ্টি আর সকালের কুয়াশাই যেন প্রকৃতিতে জানান দিচ্ছে শীতের আগমন। বাতাসের শুষ্কতা আর ছিটেফোটা বৃষ্টিতে শীত অনুভূত হলেও আবহাওয়া অফিস, এজন্য পুবালি ও পশ্চিমা বায়ুর সংযোগকেই দায়ী করছেন। রাজধানীতে নভেম্বরের মাঝামাঝি আর সারাদেশে নভেম্বরের শেষ দিকে শীত পড়বে বলেও জানিয়েছেন তারা। এদিকে, প্রকৃতির এই রূপ পরিবর্তনের প্রভাব পড়েছে সারাদেশের জনজীবনে। যদিও অনেকেই আনন্দিত শীতের এই আগমনী বারতায়।

সকাল গড়িয়ে দুপুর। তবু রাজধানীতে মেলেনি সূর্যের দেখা। এরই মাঝে গুড়িগুড়ি বৃষ্টিও ছুঁয়ে গেছে নাগরিক জীবন। ঋতুচক্রের এই আবহাওয়াগত পরিবর্তনের মাঝে কাজের প্রয়োজনে বাইরে বের হওয়া রাজধানীবাসী পড়েন কিছুটা অস্বস্তিতে। যদিও প্রকৃতির স্বাভাবিক এই রূপ পরিবর্তনকে ইতিবাচক হিসেবেই দেখছেন তারা।

এদিকে, পূবালী ও পশ্চিমা বায়ুর সংযোগের কারণে রাজধানীসহ দেশের বেশ কয়েক জায়গায় গুড়িগুড়ি বৃষ্টি হচ্ছে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অফিস। আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে প্রকৃতির এই আকস্মিক বৈরিতা স্বাভাবিক হয়ে আসবে বলেও জানিয়েছেন তারা।

আগামী মাসের শেষ দিকে সারাদেশে শীত পড়ার পূর্বাভাস দিয়েছে আবহাওয়া অফিস। এদিকে, সকালে সিলেট, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও কুমিল্লাসহ দেশের বিভিন্ন স্থানে গুড়ি গুড়ি বৃষ্টি হয়। এতে ভোগান্তিতে পড়েন সাধারণ মানুষ। বৃষ্টির সঙ্গে বয়ে চলা ঠাণ্ডা বাতাস এই ভোগান্তির মাত্রা বাড়িয়েছে বহুগুণ।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/এ আর/এস আর

৩০ অক্টোবর, ২০১৭ ১৮:০৪ পি.এম