President

মালয়েশিয়ার পেনাং প্রদেশে ভূমিধসে একটি নির্মাণাধীন ভবন বিধ্বস্ত হয়ে চাপা পড়ে চার শ্রমিক নিহত হয়েছে। নিহতদের মধ্যে তিন জন বাংলাদেশি শ্রমিক। এছাড়া ভবন ধসের ঘটনায় নিখোঁজ আছেন আরও ১০ জন।

শনিবার স্থানীয় জর্জ শহরের এই ভূমিধসের ঘটনা ঘটে। কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম রয়টার্স এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে নিখোঁজ শ্রমিকদের অধিকাংশই বাংলাদেশি, ইন্দোনেশীয়। এক পাকিস্তানি ও এক রোহিঙ্গা শরণার্থীও আটকা পড়েছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এছাড়া নির্মাণকাজের সুপারভাইজার এক মালয়েশীয় ব্যক্তি চাপা পড়েছেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।

কর্মকর্তারা জানান, তিন বাংলাদেশির মরদেহ শনাক্ত করা হয়েছে। নিহতদের মধ্যে অজ্ঞাত এক শ্রমিক রয়েছেন। সামান্য আঘাত প্রাপ্ত দুই শ্রমিক ভবন ধস থেকে বেঁচে গেছেন।

উদ্ধার অভিযান সম্পর্কে পেনাং ফায়ার সার্ভিস ও উদ্ধার বিভাগের পরিচালক সাদন মোখতার জানান, ৩৫ মিটার গভীরে আমাদের উদ্ধার কাজ চালাতে হচ্ছে। কে-নাইন ইউনিট মোতায়েন করা হচ্ছে। আটকে পড়াদের খোঁজে তিনটি কুকুরও কাজ করছে।

রবিবার দিনের আলোতে পুনরায় উদ্ধার অভিযান শুরু হবে বলে জানিয়েছেন মোখতার।

স্বজনদের খোঁজে ঘটনাস্থলে বাংলাদেশিরা

৪৭ বছরের বাংলাদেশি মোহাম্মদ বুলুমুলাহ মোহাম্মদ আতেলমুল্লাহ ঘটনাস্থলের পাশে একটি রাস্তায় বসে আছেন। তার চোখে পানি। তিনি এসেছেন তারা ভাইপো নুরুল্লার (৩৫) খোঁজে। ধারণা করা হচ্ছে, ভবন ধসে নুরুল্লা চাপা পড়েছেন।

আতেলমুল্লাহ বলেন, কী করব আমি জানি না। সকাল আটটায় সে কাজে আসে। এই ঘটনা ঘটেছে সাড়ে আটটায়। আমার মনে হয় সে বেঁচে নাই।

আরেক বাংলাদেশি মোহাম্মদ আওয়াল জাফরা আলমা (২১) জানান, আমার এক বন্ধু জানিয়েছে এখানে ছোট ভাই আব্দুল রহমান (১৮) ভূমি ধসে চাপা পড়েছে।

ধসের সময় ভবনটিতে থাকা বাংলাদেশি এক শ্রমিক পালিয়ে বেঁচে গিয়েছেন। মোহাম্মদ জসিম হুসেইফ আহমদ (২৭) নামের ওই শ্রমিক জানিয়েছেন, ধসের সময় ভবনটিতে প্রায় ২০জন শ্রমিক কাজ করছিল। সূত্র: রয়টার্স, স্ট্রেইট টাইমস।


টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/এ আর/এস আর

২১ অক্টোবর, ২০১৭ ২০:২৬ পি.এম