President

অংশগ্রহণমূলক নির্বাচনের লক্ষ্যে নির্বাচন কমিশনের কাছে আওয়ামী লীগ ইতিবাচক প্রস্তাব তুলে ধরেছে বলে জানিয়েছেন দলের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বুধবার নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে সংলাপে অংশ নিয়ে আওয়ামী লীগ ১১টি প্রস্তাব তুলে ধরে। রাজধানীর আগারগাঁওয়ে নির্বাচন ভবনে অনুষ্ঠিত এ সংলাপে ওবায়দুল কাদেরের নেতৃত্বে ২১ সদস্যের প্রতিনিধি দল সংলাপে অংশ নেয়। তবে সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম স্ত্রীর অসুস্থার কারণে দেশে না থাকায় সংলাপে অংশ নেননি।

সকাল ১১টা থেকে দুপুর ১টা ২০ মিনিট পর্যন্ত এ সংলাপে আওয়ামী লীগের একাধিক নেতা বক্তব্য রাখেন। সংলাপের পর আওয়ামী লীগের পক্ষ থেকে ব্রিফিং করা হলেও কমিশনের তরফে কোনো ব্রিফ হয়নি। তবে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) তার সূচনা বক্তব্যে বলেন, বাংলাদেশের সব সফল অর্জন আওয়ামী লীগের হাত ধরে এসেছে। নির্বাচন কমিশনও আওয়ামী লীগের আমলে ব্যাপক স্বাধীনতা পেয়েছে। বাংলাদেশের নির্বাচন কমিশন পৃথিবীর অনেক দেশের কমিশনের চেয়ে বেশি স্বাধীনতা ভোগ করছে।

সংলাপ শেষে ওবায়দুল কাদের সাংবাদিকদের বলেন, অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন করার লক্ষ্যে যেসব ইতিবাচক প্রস্তাব দেওয়া প্রয়োজন আমরা সেগুলোই দিয়েছি। আমরা নির্বাচন কমিশনের সঙ্গে সংলাপে ১১ দফা প্রস্তাব দিয়েছি। একইসঙ্গে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠা ও নির্বাচনের ইতিহাস নিয়ে সংলাপে আলোচনা হয়েছে। নির্বাচন কমিশনও আমাদের প্রস্তাবে বলেছে- এটি কোনো দলের প্রস্তাব নয়- প্রতীকি প্রস্তাব, নিরপেক্ষ প্রস্তাব ও ইতিবাচক প্রস্তাব।

বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানকে দেশে 'বহুদলীয় গণতন্ত্রের পুনঃপ্রতিষ্ঠাতা' বলার বিষয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনারের (সিইসি) কাছে কোনো ব্যাখ্যা চাওয়া হয়েছে কী না- সংবাদিকদের এমন প্রশ্নে ওবায়দুর কাদের বলেন, আমরা ব্যাখ্যা চেয়েছি, প্রধান নির্বাচন কমিশনার ব্যাখ্যা দিয়েছেন। কিন্তু তা এখানে বলবো না। যদি কোনো ব্যাখ্যা দিতে হয়, তা সাংবাদিকদের কাছে প্রধান নির্বাচন কমিশনার দেবেন।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/এ আর/এস আর

১৮ অক্টোবর, ২০১৭ ১৫:১০ পি.এম