President

সরকার পরিকল্পিতভাবে মিথ্যা মামলা দিয়ে বিএনপির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন বলে মন্তব্য করেছেন দলটির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।
আজ মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে খা‌লেদা জিয়ার বিরু‌দ্ধে গ্রেপ্তা‌রি প‌রোয়ানা জা‌রির প্রতিবাদে জাতীয়তাবাদী সামা‌জিক-সাংস্কৃ‌তিক সংস্থা (জাসাস) আ‌য়ো‌জিত মানববন্ধ‌নে তিনি এ মন্তব্য করেন।

রিজভী বলেন, দেশ‌নেত্রী‌কে ‌মিথ্যা মামলায় গ্রেপ্তারি প‌রোয়ানা জা‌রি ক‌রে‌ছে সরকার। ঠিক আসার সম‌য় হ‌য়ে‌ছে যখন, তখনই প‌রোয়ানা জা‌রি। এদের (সরকা‌রের) ছক বাঁধা আছে। সবকিছু ডিজাইনের ম‌ধ্যে কর‌ছে, টাইমিং করা আছে সরকা‌রের। ‌কিন্তু গলায় গামছা দি‌য়ে ক্ষমতা থে‌কে যেদিন না‌মিয়ে দেবে দে‌শের জনগণ, এটা তারা জা‌নে না।
বিএনপির জ্যেষ্ঠ এই নেতা বলেন, তা‌দের মুখে গণতন্ত্রের কথা? ত‌াহ‌লে বাকশাল কী? বাকশাল মা‌নেই গণতন্ত্র হত্যা, মি‌ছিল করা যা‌বে না, প্রতিবাদ করা যা‌বে না ।
‌বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানকে নিয়ে প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে. এম. নুরুল হুদার বক্তব্যের যাঁরা সমালোচনা করছেন, তাঁদের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করেন রিজভী। তিনি বলেন, ‘জিয়াউর রহমান বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রতিষ্ঠাতা—তা বলা যা‌বে না। কবির কথা ভুল, আওয়ামী লী‌গের কথা সত্য, আইনমন্ত্রীর কথা সত্য, তা‌দের কথা মান‌তে হবে। না মান‌লে আপ‌নি মামলা খা‌বেন, গুম হ‌বেন, খুন হ‌বেন।
তিনি আরও বলেন, মহান মু‌ক্তিযু‌দ্ধের সময় প্রধান নেতা বা‌ড়ি‌তে ব‌সে থাকলেন আর দা‌য়িত্ব পালন কর‌লেন মেজর জিয়া। এজন্যই তাঁর ওপর ক্ষোভ। ‌শেখ হাসিনা বারবার জনগ‌ণের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা ক‌রে‌ছে, খা‌লেদা জিয়া ক‌রে‌নি। দালা‌লির চ‌রিত্র, মোসা‌হেবি চ‌রিত্র কেন খা‌লেদা জিয়ার নেই, এজন্য খা‌লেদা জিয়ার ওপর ক্ষোভ। ‌নির‌পেক্ষ নির্বাচ‌নের প্রধান অন্তরায়ই তো শেখ হা‌সিনা। ‌শেখ হা‌সিনার অধী‌নে নির‌পেক্ষ নির্বাচন হ‌বে না।
আইনমন্ত্রীর সমালোচনা করে রিজভী ব‌লেন, আপ‌নি নি‌জেই তো অর্বাচীনের দ‌লে, আপ‌নি জালিয়া‌তি ক‌রে জাল স্বাক্ষর ক‌রে প্রধান বিচারপ‌তি‌কে বি‌দেশ যে‌তে বাধ্য ক‌রে‌ছেন। আবার বল‌ছেন আপ‌নি সত্যবাদী, আপ‌নি সত্যবাদী, জনগ‌ণের অন্ত‌রে আপ‌নি যে মিথ্যাবাদী, তা বুঝ‌তে পার‌ছেন না?
আওয়ামী লীগের সমালোচনা করে বিএনপির এই রাজনীতিক বলেন, খা‌লেদা জিয়ার বিরু‌দ্ধে আওয়ামী লীগ ব‌লে‌ছে, তি‌নি লন্ড‌নে ব‌সে ষড়যন্ত্র কর‌ছেন, দে‌শে আস‌বেন না। খা‌লেদা জিয়া দে‌শে অবশ্যই আস‌বেন, পা‌লি‌য়ে যাওয়ার নী‌তি তো আওয়ামী লী‌গের। ‌মিথ্যা প‌রোয়ানা দি‌য়ে, আপনারা ভাব‌ছেন দুর্বল কর‌বেন?
মানববন্ধ‌নে অন্যদের মধ্যে উপ‌স্থিত ছি‌লেন জাসাস নেতা মামুন আহ‌মেদ, চল‌চ্চিত্র অভিনেতা হেলাল খান, অভিনেতা আশ্রাফ উদ্দিন উজ্জল, অভি‌নেত্রী শায়লা, জাসা‌সের জ্যেষ্ঠ যুগ্ম সম্পাদক রতন সাহা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মীর মোহাম্মদ মন্টু, তেজগাঁও থানা বিএন‌পির সাংগঠ‌নিক সম্পাদক মোহাম্মদ ক‌বির প্রমুখ।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/এ আর/এস আর

১৭ অক্টোবর, ২০১৭ ১৮:৪৯ পি.এম