President

সম্প্রতি এ বছরের মে মাসে বেশ ধুমধাম করে সামাজিক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে নেপালের ইতিহাসে এই প্রথম একজন ৪০ বছর বয়সী বৃহন্নলা ২২ বছর বয়সী এক তরুণের সঙ্গে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছেন। বহুদিনের প্রেম ছিল এই যুগলের কিন্তু সমাজ এবং পরিবারের ভয়ে এত দিন তারা বিয়ের সিদ্ধান্ত নিতে পারেনি। তবে এবার তাদের ঠেকায় কে, এই যুগল এখন নেপালের জেলা প্রসাশনের ঘোষণাকৃত স্বীকৃতি দম্পতি, শুধু তাই নয় ইতোমধ্যে ছোট্ট একটি সুখের ঘরও বেঁধে ফেলেছেন তারা।

তৃতীয় লিঙ্গের অধিকারী মনিকা শাহি নাথ কখনও ভাবেননি তিনি কারো বউ হবেন, তার এই ৪০ বছর বয়সের জীবনে তিনি কারো পুত্র বধু হবেন এমনটাও কল্পনা করেনি। একজন মানুষ হিসেবে কাউকে ভালোবাসার ইচ্ছে ছিল তারও, কিন্তু নিজের অক্ষমতার কথা স্বীকার করে নিজেকে পিছিয়ে নিয়েছিলেন প্রতিবার। রমেশ নাথ যোগী হলেন সেই সাহসী তরুণ যিনি সকল বাধা অতিক্রম করে সামাজিকভাবে মনিকাকে বিয়ে করেছেন।

জেনে রাখা ভালো, মনিকা শাহি হলেন প্রথম বৃহন্নলা যিনি ২০১৫ সালে তৃতীয় লিঙ্গের মানুষ হিসেবে নেপালের প্রথম পাসপোর্ট পেয়েছিলেন।

সূত্র: ডেইলি মেইল।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/এ আর/এস আর

১৪ অক্টোবর, ২০১৭ ১৯:৫৫ পি.এম