President

মিয়ানমারের রাখাইনে নির্যাতিত হয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের জন্য বিশ্বব্যাংকের কাছে অর্থ সহায়তা চেয়েছে বাংলাদেশ।

বুধবার ওয়াশিংটন ডিসিতে বিশ্বব্যাংক-আইএম এফের বার্ষিক সম্মেলনের প্রথম দিন এ বিষয়ে আনুষ্ঠানিক প্রস্তাব দেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

এ সম্মেলনে বিশ্বব্যাংকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) ক্রিস্টালিনা জর্জিয়েভা ও দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের ভাইস প্রেসিডেন্ট অ্যানেট ডিক্সন উপস্থিত ছিলেন। তারা এ বিষয়ে বাংলাদেশকে পূর্ণ সহযোগিতার আশ্বাস দেন।

তবে এই অর্থ সহায়তার পরিমাণ ও ধরন কী হবে- তা দুপক্ষের মধ্যে আলোচনার মাধ্যমে ঠিক হবে বলে সূত্র জানিয়েছে।

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত জানিয়েছেন, মিয়ানমারে নির্যাতিত রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেয়ায় বিশ্বব্যাংকের দুই কর্মকর্তা বাংলাদেশের প্রশংসা করেছেন।

তিনি বলেন, বিশ্বব্যাংকও রোহিঙ্গাদের পাশে দাঁড়াতে চায়, সহায়তা করতে চায়- সংস্থাটির কর্মকর্তারা এমন আশ্বাসই দিয়েছেন।

অর্থমন্ত্রী বলেন, শিগগিরই বিশ্বব্যাংকের একটি প্রতিনিধিদল বাংলাদেশ সফর করবে। তারা বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে আলোচনা ও বাস্তব পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করে সার্বিক বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন।

উল্লেখ্য, গত ২৫ আগস্ট মিয়ানমারের রাখাইনে রোহিঙ্গা বিদ্রোহী ও নিরাপত্তা বাহিনীর মধ্যে সংঘর্ষ হয়।

এর জের ধরে রোহিঙ্গাদের গ্রামগুলো লক্ষ্য করে অভিযান চালায় মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। এতে কয়েক হাজার রোহিঙ্গা নিহত হন। প্রাণ বাঁচাতে দলে দলে রোহিঙ্গারা বাংলাদেশে আশ্রয় নিতে শুরু করে।

জাতিসংঘের বিভিন্ন সংস্থার হিসাব অনুযায়ী, ২৫ আগস্ট থেকে এ পর্যন্ত পাঁচ লাখ ২০ হাজারেরও বেশি রোহিঙ্গা শরণার্থী বাংলাদেশে আশ্রয় নিয়েছে।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/এ আর/এস আর

১২ অক্টোবর, ২০১৭ ১২:১৩ পি.এম