President

চুয়াডাঙ্গাঃ চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা সীমান্ত দিয়ে অবৈধভাবে ভারতে অনুপ্রবেশের সময় দামুড়হুদা থানা পুলিশ ২০ জনকে আটক করেছে।

শনিবার (৭ অক্টোবর) রাত ১০ টার দিকে দামুড়হুদা উপজেলার হুদাপাড়া গ্রাম থেকে তাদেরকে আটক করা হয়।

আটককৃতরা হলো- গোপালগঞ্জ জেলার মকসেদপুর উপজেলার অভিনাশ মন্ডলের ছেলে মানব মন্ডল (৩৮), গোয়াল গ্রামের কানাইলাল সরকারের ছেলে কংকন সরকার (২৮), চকশী গ্রামের বীরেণ বিরাগীর ছেলে বিষ্ণ বিরাগী (৩০), বাসুদেবপুরের অমৃত বিশ্বাসের ছেলে অনিমেষ বিশ্বাস (২৩), পাটকেল বাড়িয়া গ্রামের শমর মন্ডলের ছেলে মহানন্দ্র মন্ডল (১৪), বাটিকামারী গ্রামের বলরাম মন্ডলের ছেলে নবীন মন্ডল (২১), কলি গ্রামের তারাপদ মন্ডলের ছেলে সমিরন মল্লিক (১৬), একই গ্রামের দূর্লভ বিশ্বাসের ছেলে বিলাস বিশ্বাস (১৮), নিশিন্দ্রপুর গ্রামের নিরাঞ্জন সরকারের ছেলে নিয়াজ সরকার (২২), নয়াকান্দি গ্রামের মৃত মহেন্ত বিরাগীর ছেলে অনন্ত বিরাগী (৩২), তার স্ত্রী রমিলা বোরাগী (২৯), একই গ্রামের মৃত কালিপদর স্ত্রী ডলি মন্ডল (৬৫), বাঘাদিয়া গ্রামের মানব মন্ডলের স্ত্রী কাঁকুলি মন্ডল (৩২), টিকাইডাঙ্গা গ্রামের শুকান্ত বিশ্বাসের মেয়ে শ্যামলী বিশ্বাস (২৪), গায়েন্দা গ্রামের মৌঠাল মন্ডলের স্ত্রী নিলিমা মন্ডল (৩৮), তার শিশু কন্যা পূর্ণা মন্ডল (৬), দলিরপার গ্রামের আনন্দ বিশ্বাসের স্ত্রী রিনা বিশ্বাস (৪৫) ও বাঁকেমারী গ্রামের বলাই মন্ডলের স্ত্রী হাঁসি (৫৫)। শরিয়তপুর জেলার পালং উপজেলার ডুংসা গ্রামের জামিনী পালের ছেলে কৃষ্ণু পাল (৬৩), একই গ্রামের কৃষ্ণু পালের স্ত্রী আলো রানী পাল (৫৫)।

আটককৃতরা জানান, তাদেরকে অবৈধভাবে সীমান্ত পার করে দিতে হুদাপাড়া গ্রামের স্বপন প্রত্যেকের কাছ থেকে ২ থেকে ৪ হাজার টাকা গ্রহণ করে।

দামুড়হুদা মডেল থানার উপ-পরিদর্শক আনোয়ার হোসেন জানান, হুদাপাড়া সীমান্ত দিয়ে বেশ কিছুদিন ধরে একটি চক্র অবৈধভাবে ভারতে লোক পাঠিয়ে আসছিল। শনিবার রাতেও বেশ কিছু লোক সীমান্ত অতিক্রম করার জন্য হুদাপাড়া গ্রামে অবস্থান করছিল। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করা হয়।

তিনি আরো জানান, আটককৃতদের মধ্যে ৮ জন নারী, ১১ জন পুরুষ ও ১ জন শিশু রয়েছে। এদের মধ্যে ওই শিশু বাদে ১৯ জনের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি চলছে।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/এ আর/এস আর

০৮ অক্টোবর, ২০১৭ ২২:৩২ পি.এম