President

কুষ্টিয়ার মিরপুরে গ্রাম্য আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের দু’পক্ষের সংঘর্ষে আব্দুল হক সর্দ্দার নামের একজন নিহত হয়েছেন। এসময় আহত হয়েছেন অন্তত ১৫ জন।

শুক্রবার সকাল ৮টায় উপজেলার ছাতিয়ান ইউনিয়নের ধলসা গ্রামে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। নিহত আব্দুল হক উক্ত এলাকার রহমত আলী সর্দ্দারের ছেলে।

স্থানীয়রা জানায়, গত ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচনকে কেন্দ্র করে স্থানীয় মণ্ডল গ্রুপ ও সর্দার গ্রুপের মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। সর্দার গ্রুপের নেতৃত্ব দেন ছাতিয়ান ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বর্তমান চেয়ারম্যান জসীম উদ্দিন মণ্ডল ও মণ্ডল গ্রুপের নেতৃত্বে দেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তাছেল আলী মণ্ডল।

বিরোধের জের ধরে শুক্রবার সকালে স্থানীয় একটি পুকুরের আধিপত্য নিয়ে মণ্ডল গ্রুপের হাসেম মাহরীর সঙ্গে সর্দার গ্রুপের মধ্য সংঘর্ষ বাধে। এ সময় উভয়পক্ষ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে।

প্রায় ঘণ্টাব্যাপী দু’পক্ষের সংঘর্ষে সর্দ্দার গ্রুপের আব্দুল হক সর্দ্দার নামের সর্দ্দার একজন নিহত হয় এবং উভয় গ্রুপের ১৫ জন আহত হয়েছেন।

আহতদের কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল ও মিরপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এদের মধ্যে রমজান নামের একজনের অবস্থা আশংকাজনক বলে জানা গেছে।

এদিকে ঘটনার সঙ্গে জড়িত থাকায় পুলিশ ফুয়াদ নামের একজনকে আটক করেছে।
মিরপুর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আজিজুর রহমান জানান, গ্রাম্য আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুই গ্রুপের মধ্যে সংঘর্ষে আব্দুল হক নামে একজন মারা গেছেন।

বর্তমানে পরিস্থিতি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এলাকায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/এ আর/এস আর

০৬ অক্টোবর, ২০১৭ ১২:১৫ পি.এম