President

এলগারকে ফিরিয়ে টাইগার শিবিরে স্বস্তি এনে দেন শফিউল। দলীয় ৩০ রানের মাথায় ব্যক্তিগত ১৮ রান করে এলবিডব্লিউয়ের ফাঁদে পড়েন প্রথম ইনিংসে ১৯৯ রান করা ডিন এলগার। এর রেশ কাটতে না কাটতেই প্রোটিয়া ব্যাটিং লাইনআপে দ্বিতীয় আঘাত হানেন কাটার মাস্টার খ্যাত মোস্তাফিজ।

দলীয় ৩৮ রানের মাথায় লিটন দাসের হাতে কটবিহাইন্ড হয়ে ব্যক্তিগত ১৫ রানে সাজঘরে ফেরেন একে মারক্রাম।

এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত ১৪ ওভারে ৪৬ রান সংগ্রহ করেছে প্রোটিয়ারা।

এর আগে মুমিনুল-মাহমুদউল্লাহর ব্যাটিং দৃঢ়তায় ফলোঅন এড়িয়েছে বাংলাদেশ। কিন্তু আর কোনো ব্যাটসম্যান দলের জন্য উল্লেখযোগ্য অবদান রাখতে ব্যর্থ হওয়ায় ৩২০ রানেই অলআউট হয়ে যায় বাংলাদেশ।

এর ফলে ১৭৬ রানের লিড পেয়েছে দক্ষিণ আফ্রিকা।

বাংলাদেশের পক্ষে সর্বোচ্চ ৭৭ রান করেন মুমিনুল হক। এ ছাড়াও মাহমুদউল্লাহ ৬৬, মুশফিক ৪৪ রান করেন।

শনিবার ১২৭ রান নিয়ে তৃতীয় দিনের খেলা শুরু করে বাংলাদেশ। মাঠে নামেন তামিম ইকবাল এবং মুমিনুল। তবে আগের দিনের ২২ রানের সঙ্গে ১৭ রান যোগ করে ব্যক্তিগত ৩৯ রানে আউট হন তামিম।

তামিম ফিরে গেলেও দলকে লড়াই করার স্বপ্ন দেখান মুমিনুল। তুলে নেন নিজের ১২তম অর্ধশতক।

আর দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে প্রথম হাফসেঞ্চুরির দেখা পান মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। টেস্ট ক্যারিয়ারে এটি তার ১৪তম হাফসেঞ্চুরি । ১০৮ বলে করা হাফসেঞ্চুরির পথে তিনি ১০টি বাউন্ডারি হাঁকান।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/এ আর/এস আর

৩০ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ২১:৩৬ পি.এম