President

রোহিঙ্গা শরণার্থী প্রতিটি ক্যাম্পে আগামী তিন দিনের মধ্যে টেলিটকের বুথ বসানো হবে। সেখানে টেলিটক সিমের মাধ্যমে অভ্যন্তরীণ পর্যায়ে স্বল্পমূল্যে কথা বলতে পারবেন রোহিঙ্গারা। জানালেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম। শনিবার বিটিআরসি কনফারেন্স রুমে সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা জানান প্রতিমন্ত্রী।


তারানা হালিম বলেন, রোহিঙ্গাদের প্রতি মানবিক আচরণে যাতে ব্যত্যয় না ঘটে সেজন্য টেলিযোগাযোগের ক্ষেত্রে প্রাধান্য দেয়া হচ্ছে। গত ১ জুলাই থেকে অন্য অপারেটরের মাধ্যমে যে সকল সিমের মাধ্যমে রোহিঙ্গারা কথা বলছেন তা বন্ধ করে দেয়া হবে। একইসঙ্গে যে সকল সিম ব্যবহার হয়েছে সেগুলো শনাক্ত করে আইনের আওতায় আনা হবে।
প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, মূলত যে সব সিম রোহিঙ্গারা ব্যবহার করছেন, সেগুলো বায়োমেট্রিক করা। আমাদের দেশের লোকেরা বেশি দামে রোহিঙ্গাদের হাতে নিজেদের সিম তুলে দিচ্ছেন, যা শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

তারানা হালিম বলেন, এসব সিম দিয়ে কোনো ধরনের অপরাধ সংগঠিত হলে সিমের মূল মালিক শাস্তির আওতায় আসবেন। টেলিটক ছাড়া অন্য যে সব অপারেটরের সিম রোহিঙ্গারা ব্যবহার করছেন তা মোবাইল কোর্টের মাধ্যমে অভিযান চালিয়ে বন্ধ করে দেয়া হচ্ছে।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, আপাতত তাদের হাতে কোনো ধরনের সিম দেয়া হবে না। তারা টেলিটকের বুথের মাধ্যমে নিজেদের মধ্যে কথা বলবেন।
সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন বিটিআরসির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান মো. জহুরুল হকসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তারা।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/এ আর/এস আর

২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ১৬:৪২ পি.এম