President

 

ইসরায়েলের পর ইতালিতে গিয়েও মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বাড়িয়ে দেওয়া হাত ধরলেন না ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প।

সফরে গিয়ে পরপর দুদিন একই ঘটনা ঘটালেন যুক্তরাষ্ট্রের ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বাড়িয়ে দেওয়া হাত প্রত্যাখ্যান করলেন তিনি। আর সেটা ক্যামেরার সামনেই। এসব ছবি ছড়িয়ে পড়তে মোটেও সময় লাগল না। আর সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমও তা লুফে নিল।

 

এনডিটিভি অনলাইনের খবরে বলা হয়েছে, শেষ ঘটনাটি ঘটেছে গতকাল মঙ্গলবার; ট্রাম্প ও মেলানিয়া যখন ইতালির রোমের বিমানবন্দরে উড়োজাহাজ থেকে নামছিলেন, তখন। আর আগের ঘটনাটি ঘটেছিল গত সোমবার, ইসরায়েলে।

 

 

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের বাড়িয়ে দেওয়া হাত প্রত্যাখ্যান করে নিজের চুল ঠিকঠাক করেলন ফার্স্ট লেডি মেলানিয়া ট্রাম্প। 

প্রকাশিত একটি ভিডিওতে দেখা গেছে, উড়োজাহাজ থেকে নামতে শুরু করেছেন ট্রাম্প ও মেলানিয়া। আছেন পাশাপাশি। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প হাত ধরার জন্য হাত বাড়িয়ে দিলেন ফার্স্ট লেডি মেলানিয়ার দিকে। মেলানিয়া হাতটি না ধরে ধরলেন নিজের চুল। ঠিকঠাক করে নিলেন চুল। প্রেসিডেন্ট অবশ্য বিষয়টাকে বেশ স্মার্টলি সামলে নিয়েছেন।

এর আগের ঘটনাটি ইসরায়েলের বিমানবন্দরে ঘটে। দেশটিতে পৌঁছে উড়োজাহাজ থেকে নামেন ট্রাম্প-মেলানিয়া দম্পতি। বিমানবন্দরের লালগালিচা দিয়ে হাঁটছিলেন দুজন। এর মাঝে ট্রাম্প স্ত্রীর দিকে হাত বাড়িয়ে দেন। কিন্তু তিনি তা ধরেননি, বরং হালকা চাপড় দিয়ে সরিয়ে দেন। ক্যামেরায় ধরা পড়া সে দৃশ্য যথারীতি ছড়িয়ে পড়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে। এটি নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা চলার মধ্যেই দ্বিতীয়বার একই ধরনের ঘটনা ঘটল। আর তাই নিয়ে চলছে বিচার-বিশ্লেষণ—মেলানিয়া কেন এমন করলেন? এ কি কোনো অভিমান? নাকি সম্পর্কে ফাটল ধরেছে এই দম্পতির?

সৌদি আরব দিয়ে ট্রাম্প-মেলানিয়ার সফর শুরু হয়। সেখান থেকে তাঁরা ইসরায়েল, ফিলিস্তিন হয়ে ইতালি গেছেন।

২৪ মে, ২০১৭ ০৯:০৬ এ.ম