President

হয়তো রান্না করেছিলেন গরুর মাংসের তরকারি- তেহারি, রেজালা অথবা সাধারণ ভুনা। পুরোটুকু খাওয়া হয়নি, রেখে দিয়েছিলেন জ্বাল দিয়ে, কিন্তু এখন আর একই তরকারি খেতে ইচ্ছে করছে না। কী করবেন তখন? চলুন, রান্না করা বাসি মাংস দিয়ে তৈরি দারুণ স্বাদের এবং দারুণ সহজ মাংসের ভর্তার রেসিপিটি জেনে নিই মুক্তি আফরোজের থেকে।

উপকরণ:

পিঁয়াজ কুচি - এক কাপের তিন ভাগের এক ভাগ

সরিষার তেল - ১ টেবিল চামচ

ভাজা জিরা গুঁড়ো - হাফ চা চামচ

গরম মসলা গুঁড়ো - হাফ চা চামচ

ধনেপাতা কুচি - ১ টেবিল চামচ

কাঁচা মরিচ কুচি - ১ টেবিল চামচ

আদা মিহি কুচি - ১ চা চামচ

রসুন মিহি কুচি - ১ চা চামচ

লবণ স্বাদ মত

শুকনো মরিচ ভাজা - ৪/৫টা

কয়েক টুকরো রান্না করা গরুর মাংস

গরুর মাংস ভর্তা

প্রণালী:

১) রান্না করা গরুর মাংস হাত দিয়ে কিছুটা ছাড়িয়ে নিতে হবে। এর মাঝে যেন হাড় বা চর্বি না থাকে সেদিকে মনোযোগ রাখুন। হাত দিয়ে ছাড়িয়ে একটু চটকে নিতে পারেন। শক্ত মনে হলে পাটায় একটু ছেঁচেও নিতে পারেন মাংসগুলো। আপনার সুবিধা মনে হলে ছুরি দিয়েও চপ করে নিতে পারেন। তবে অবশ্যই ব্লেন্ডারে দেওয়া যাবে না।

২) প্রথমেই লবণের সাথে শুকনো মরিচ ভেঙ্গে চটকে নিতে হবে। এরপর এর সাথে পিঁয়াজ কুচি চটকে নিন। পিঁয়াজ নরম না হওয়া পর্যন্ত চটকে নিতে হবে।

৩) এরপর এর মাঝে আদা ও রসুন কুচি দিয়ে মাখিয়ে নিন, মনে রাখবেন আদা-রসুন কুচি খুব মিহি হবে, কিন্তু বাটা আদা বা রসুন কিন্তু এতে দেওয়া যাবে না।

৪) এবার এতে কাঁচামরিচ ও ধনেপাতা কুচি দিন। অনেকেই ভাবতে পারেন শুকনো মরিচ তো দেওয়া হয়েছেই, আবার কাঁচা মরিচ কেন? কাঁচা মরিচ দিলে সুন্দর একটা ফ্লেভার আসবে এই ভর্তায়। তবে আপনি চাইলে বাদও দিতে পারেন।

৫) এবার এতে ভাজা জিরা ও গরম মশলা গুঁড়ো দিয়ে মাখিয়ে নিন। সবশেষে এতে তেল ঢেলে দিয়ে মাখিয়ে নিন। এসব মশলা মাখানো হয়ে গেলে একদম শেষে মিশিয়ে নিন আগে থেকে ঝুরো করে রাখা মাংসটি।

তৈরি হয়ে গেল মাংসের ভর্তা। এটা আপনি গরুর মাংস বা খাসির মাংস দিয়ে করতে পারেন। রেসিপির ভিডিওটি দেখে নিতে পারেন এখানে-

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/এ আর/এস আর/এইচ কে

১৮ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ১৯:৩৭ পি.এম