President

দুনিয়ায় প্রতিটি কাজেই রয়েছে বরকতময় দোয়া। যা কুরআন এবং হাদিসে বর্ণিত রয়েছে। হাদিসে পাকে প্রিয়নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম প্রতিটি কর্মের উদ্দেশ্যেই দোয়া ও আমল-এর বর্ণনা দিয়েছেন।

নতুন জামা-কাপড় পরিধানের ক্ষেত্রে আল্লাহর রহমত ও বরকত কামনায় হাদিসে দোয়ার উদ্ধৃতি দেয়া হয়েছে।


হজরত আবু সাঈদ খুদরি রাদিয়াল্লাহু আনহু বলেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম যখনই কোনো নতুন কাপড় পরিধান করতেন, তখন তার (জামা-কাপড়ের) নাম উল্লেখ করতেন। যেমন পাগড়ি, জামা, চাদর ইত্যাদি। অতপর বলতেন-

‘আল্লা-হুম্মা লাকাল-হামদু আনতা কাসাওতানীহি। আসআলুকা মিন খাইরিহি ওয়া খাইরি মা সুনিআ’ লাহু। ওয়া আঊ’জু বিকা মিন শাররিহি ওয়া শাররি মা সুনিআ’ লাহু।

অর্থ : ‘হে আল্লাহ্! সব প্রশংসা আপনারই জন্য। আপনিই আমাকে এ পোশাক পরিয়েছেন। আমি আপনার কাছে এর কল্যাণ ও এটি যে উদ্দেশ্যে তৈরি হয়েছে তার কল্যাণ প্রার্থনা করি। আর আমি এর অনিষ্ট এবং এটি যে জন্য তৈরি করা হয়েছে তার অনিষ্ট থেকে আপনার আশ্রয় চাই।’ (আবু দাউদ, মিশকাত)

যে কোনো কাপড় পরিধান
আর যে কোনো কাপড় পরিধানের ক্ষেত্রেও রয়েছে দোয়া। তা হোক নতুন কিংবা পুরনো। সেক্ষেত্রেও রয়েছে বরকত ও কল্যাণের দোয়া। আর তাহলো-


আলহামদুলিল্লা হিল্লাজি কাসানি হাজা (চ্ছাওয়াবু) ওয়া রাযাক্বানিহি মিন গাইরি হাইলিম মিন্নি ওয়া লা কুওয়্যাহ।’ (তিরিমজি, আবু দাউদ, ইবনে মাজাহ)

অর্থ : সব প্রশংসা আল্লাহর, যিনি আমাকে এ (কাপড়)টি পরিধান করিয়েছেন এবং আমার শক্তি-সামর্থ্য ছাড়াই তিনি আমাকে এটা দান করেছেন।’

পরিশেষে...
আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহর প্রত্যেককে প্রতিটি কল্যাণের কাজে তাঁর সাহায্য ও রহমত লাভের তাওফিক দান করুন। আমিন।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/এ আর/এস আর/এইচ কে

১৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ২৩:২২ পি.এম