President

উত্তর কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট কিম জং উনকে নিশ্চিহ্ন করার হুমকি দিয়ে মার্কিন সিনেটর জন ম্যাককেইন বলেছেন, কিম জং উন নিশ্চিতভাবে জানেন যে, যদি তিনি আক্রমণাত্মক ভঙ্গিমায় কর্মকাণ্ড পরিচালনা করেন তাহলে তার ফল হবে ধ্বংসাত্মক। মার্কিন সিনেটের আর্মড সার্ভিসেস কমিটির চেয়ারম্যান ম্যাককেইন আরও বলেন, পিয়ংইয়ংয়ের পরমাণু অস্ত্রাগারের উন্নয়ন ঘটাতে দেবে না যুক্তরাষ্ট্র।
এছাড়া কিম যথেষ্ট ‘বাস্তব বুদ্ধিসম্পন্ন’ নয় বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

যুক্তরাষ্ট্রের টিভি নেটওয়ার্ক সিএনএনের টকশো ‘স্টেট অব দ্য ইউনিয়নে’ রবিবার এ হুশিয়ারি দিয়েছেন রিপাবলিকান সিনেটর।

ম্যাককেইন বলেন, উত্তর কোরিয়ার ক্রমবর্ধমান পরমাণু অস্ত্র পরীক্ষা ও পরমাণু কর্মসূচি প্রতিহত করতে পিয়ংইয়ংয়ের ওপর চাপ প্রয়োগের জন্য চীনের সঙ্গে কাজ করে যাবে যুক্তরাষ্ট্র। যদি চীন কিছু করতে না পারে তবে কি পদক্ষেপ নেয়া হবে- এমন প্রশ্নের জবাবে রিপাবলিকান দলের এ নেতা বলেন, তৃতীয় পদক্ষেপ হবে ‘ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষা’। এক্ষেত্রে দক্ষিণ কোরিয়াকে ক্ষেপণাস্ত্র প্রতিরক্ষার জন্য শক্তিশালী হিসেবে তৈরি করার পদক্ষেপ নিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। তিনি বলেন, কিম ধৈর্যের সীমা ছাড়িয়ে গেলে তাকে নিশ্চিহ্ন করে দেয়া হবে।

ওয়াশিংটনকে চরম দুর্ভোগের হুশিয়ারি উত্তর কোরিয়ার: উত্তর কোরিয়া হুশিয়ারি উচ্চারণ করে বলেছে, যুক্তরাষ্ট্র যদি জাতিসংঘের মাধ্যমে পিয়ংইয়ংয়ের ওপর কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপের প্রচেষ্টা অব্যাহত রাখে তাহলে ওয়াশিংটনকে ‘কঠোর দুর্ভোগ ও দুঃখ-কষ্ট’ ভোগ করতে হবে। উত্তর কোরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সোমবার সকালে এক বিবৃতিতে এ হুশিয়ারি উচ্চারণ করেছে। বিবৃতিতে বলা হয়, পিয়ংইয়ংবিরোধী মার্কিন শত্রুতামূলক তৎপরতা চলতে থাকলে উত্তর কোরিয়া এত বেশি কঠোর পদক্ষেপ নেবে, যা আমেরিকার জন্য কল্পনা করাও দুঃসাধ্য। বিবৃতিতে প্রত্যয় ব্যক্ত করে বলা হয়, উত্তর কোরিয়া ‘মার্কিন গ্যাংস্টারদের’ বশে এনে ছাড়বে।

লন্ডনে পিয়ংইয়ংয়ের ক্ষেপণাস্ত্র হামলার আশঙ্কা: যুক্তরাজ্যের রাজধানী লন্ডনে উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্র হামলার আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন ব্রিটিশ প্রতিরক্ষামন্ত্রী স্যার মাইকেল ফ্যালোন। তিনি বলেন, পরমাণু অস্ত্রধর উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে যুদ্ধের মারাত্মক আশঙ্কা রয়েছে। পিয়ংইয়ংয়ের ক্ষেপণাস্ত্র লন্ডনের ওপর পড়তে পারে বলেও হুশিয়ারি উচ্চারণ করেন তিনি। এ হুশিয়ারির বিষয়ে যুক্তি দিয়ে তিনি বলেন, উত্তর কোরিয়ার ক্ষেপণাস্ত্রের পাল্লা ক্রমেই বাড়ছে এবং লস অ্যাঞ্জেলসের তুলনায় লন্ডনের দূরত্ব কম।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/এ আর/এস আর/এইচ কে

১২ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ০৯:৫০ এ.ম