President

২০১৩ সালের ১৫ জুন অনুষ্ঠিত চার সিটি করপোরেশন যথাক্রমে বরিশাল, খুলনা, সিলেট ও রাজশাহীর নির্বাচনে মেয়র পদে জয়ী হয়েছিলেন বিএনপি-সমর্থিত প্রার্থীরা। তাঁদের মধ্যে একমাত্র বরিশাল সিটি করপোরেশনের মেয়রই নিরবচ্ছিন্নভাবে দায়িত্ব পালন করতে পেরেছেন। অন্যদের অবস্থা হয়েছে ‘এই আছি, এই নেই’। ওই বছরের ৬ জুলাই অনুষ্ঠিত গাজীপুর সিটি করপোরেশনে বিজয়ী বিএনপি-সমর্থিত মেয়রকেও একই দুর্ভাগ্যের শিকার হতে হয়েছে।

সংবিধানের ৯ ধারায় বলা হয়েছে, ‘রাষ্ট্র সংশ্লিষ্ট এলাকার প্রতিনিধিগণ সমন্বয়ে গঠিত স্থানীয় শাসনসংক্রান্ত প্রতিষ্ঠানসমূহকে উৎসাহ দান করিবেন।’ এখন যদি সরকার নানা কৌশলে সেই নির্বাচিত প্রতিনিধিদের বঞ্চিত করে অনির্বাচিত প্রশাসক কিংবা মেয়র হিসেবে জনগণ যাঁকে নির্বাচিত করেননি, এমন কাউকে দিয়ে সিটি করপোরেশনের মতো গুরুত্বপূর্ণ প্রতিষ্ঠান পরিচালনা করতে থাকে, তাহলে নির্বাচনের কী দরকার?

সিলেট ও রাজশাহীর মেয়র সম্প্রতি আদালতের রায় নিয়ে পদে অধিষ্ঠিত হয়েছেন। কয়েক মাস আগে একই উপায়ে খুলনার মেয়র দায়িত্ব পেয়েছেন। কিন্তু পদে বসলেও তাঁরা স্বাভাবিক কাজকর্ম করতে পারছেন না বলে অভিযোগ আছে। গত সাড়ে তিন বছরে খুলনা সিটি করপোরেশন থেকে পাঠানো কোনো প্রকল্পেই অনুমোদন দেয়নি স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়। আর আদালতের রায় নিয়ে সিলেটের মেয়র গদিনশিন হলেও গত বৃহস্পতিবার পর্যন্ত মন্ত্রণালয় থেকে কোনো নির্দেশনা না যাওয়ায় তিনি প্রশাসনিক ও আর্থিক বিষয়ে সিদ্ধান্ত দিতে পারছেন না। গাজীপুরের মেয়রের বরখাস্তের আদেশও বৃহস্পতিবার উচ্চ আদালত স্থগিত করেছেন।

নির্বাচিত মেয়রদের প্রতি স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের এই বৈরী ও বিমাতাসুলভ আচরণ কোনোভাবেই মেনে নেওয়া যায় না। কোনো জনপ্রতিনিধির নামে মামলা হওয়া কিংবা অভিযোগপত্র দায়ের করার অর্থ এই নয় যে তিনি অপরাধী। বিরোধীদলীয় জনপ্রতিনিধিদের ওপর অন্যায় আইনের খড়্গ ঝোলানো থাকলে স্থানীয় সরকার সংস্থাগুলোই কেবল দুর্বল হচ্ছে না, সংশ্লিষ্ট এলাকার নাগরিকেরাও বঞ্চিত হচ্ছেন। অন্যদিকে সরকারি দলের সমর্থক স্থানীয় সরকার সংস্থার জনপ্রতিনিধিদের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ থাকলেও কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না।

ফলে এই ধারণা অমূলক নয় যে সরকার রাজনৈতিক হাতিয়ার হিসেবেই আইনটি ব্যবহার করছে এবং যেসব এলাকায় বিরোধী দলের প্রার্থী জয়ী হয়েছেন, সেসব এলাকার ভোটারদেরও শাস্তি দিচ্ছে। জনপ্রতিনিধিদের প্রতি এই হয়রানি ও জুলুম বন্ধ করুন।

১৬ এপ্রিল, ২০১৭ ২৩:১৩ পি.এম