President

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) উপাচার্যের দায়িত্ব গ্রহণ করলেন অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান।

বুধবার সকাল সোয়া ৯টার দিকে উপাচার্য কার্যালয়ে তিনি এ দায়িত্ব গ্রহণ করেন।

দায়িত্ব গ্রহণের পর উপাচার্য বলেন, আমাকে দায়িত্ব দেয়ায় প্রধানমন্ত্রী ও রাষ্ট্রপতিকে কৃতজ্ঞতা জানাই। বিশ্ববিদ্যালয়ের স্বার্থেই সবার সাহায্য কামনা করছি। বিশ্ববিদ্যালয়ের সবাইকে নিয়ে এক পরিবার হয়ে আমি কাজ করব। এখানে সব সিদ্ধান্ত গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে নেয়া হবে।

এরপর বেলা পৌনে ১০টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, কর্মকর্তা ও কর্মচারীদের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় করেন নতুন উপাচার্য।

সোমবার অধ্যাপক মো. আখতারুজ্জামানকে উপাচার্যের দায়িত্ব দিয়েছেন রাষ্ট্রপতি ও বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য্য মো. আবদুল হামিদ।

গত ২৩ মে উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিকের মেয়াদ শেষ হওয়ায় এবং সিনেট-মনোনীত উপাচার্য প্যানেল আদালতে স্থগিত হওয়ায় আখতারুজ্জামানকে সাময়িকভাবে উপাচার্যের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে বলে প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিকের মেয়াদোত্তীর্ণ হওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ও প্রশাসনিক কাজ সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার স্বার্থে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আদেশ ১৯৭৩-এর ১১ (২) ধারা অনুযায়ী মহামান্য রাষ্ট্রপতি ও আচার্য ইসলামের ইতিহাস এবং সংস্কৃতি বিভাগের অধ্যাপক ও উপউপাচার্য অধ্যাপক মো. আখতারুজ্জামানকে সম্পূর্ণ সাময়িকভাবে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের দায়িত্ব দেয়া হয়েছে।

প্রজ্ঞাপনে এই নিয়োগের সঙ্গে তিনটি শর্ত দেয়া হয়। এগুলো হল- রাষ্ট্রপতি ও আচার্য প্রয়োজন মনে করলে যে কোনো সময় অধ্যাপক মো.আখতারুজ্জামানকে দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দিতে পারবেন। তিনি বিধি অনুযায়ী, পদসংশ্লিষ্ট অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা ভোগ করবেন। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা হিসেবে সার্বক্ষণিকভাবে বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাসে অবস্থান করবেন।

এর আগে ২০০৯ সালে রাষ্ট্রপতি আরেফিন সিদ্দিককে সম্পূর্ণ অস্থায়ী হিসেবে নিয়োগ দিলেও তিনি নির্বাচন ছাড়াই সাড়ে চার বছর দায়িত্ব পালন করেছেন।

১৯৯০ সালে ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের প্রভাষক হিসেবে যোগ দেয়ার পর ২০০৪ সালে আখতারুজ্জামান অধ্যাপক হন। তিনি পিএইচডি করেন ভারতের আলীগড় মুসলিম বিশ্ববিদ্যালয়ে।

পরবর্তীতে ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি বিভাগের চেয়ারম্যান ও কলা অনুষদের ডিন হিসেবে দায়িত্ব দেয়া হয় তাকে। এরপর ২০১৬ সালের ২২ জুন আখতারুজ্জামানকে উপউপাচার্য করা হয়।

আওয়ামী লীগ সমর্থক শিক্ষকদের নীল দলের প্যানেল থেকে ২০০৪,২০০৫ ও ২০০৬ মেয়াদে তিন দফা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন আখতারুজ্জামান।

সে সময় সমিতির সভাপতি ছিলেন গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক। পরে ২০০৯ সালের ১৫ জানুয়ারি আরেফিন সিদ্দিককে উপাচার্য হিসেবে সাময়িক নিয়োগ দেয়া হয়।

নির্বাচন ছাড়াই সাড়ে চার বছর দায়িত্ব পালনের পর ২০১৩ সালের ২৪ আগস্ট সিনেটের বিশেষ অধিবেশনে উপাচার্য প্যানেল নির্বাচনের মাধ্যমে আরেফিন সিদ্দিককে আরও চার বছরের জন্য নিয়োগ দেয়া হয়। তার সেই মেয়াদ গত ২৪ আগস্ট শেষ হয়।


টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/এ আর/এস আর/এইচ কে

০৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ১৪:১৭ পি.এম