ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগরে হামলার ঘটনায় গ্রেফতার হরিপুর ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান দেওয়ান আতিকুর রহমান আঁখির ৫ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

রোববার দুপুরে রিমান্ড আবেদনের শুনানি শেষে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সরাফ উদ্দিন এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন। ব্রাহ্মণবাড়িয়ার কোর্ট ইন্সপেক্টর মো. মাহবুবুর রহমান রিমান্ডের বিষয়টি পরিবর্তন ডটকমকে নিশ্চিত করেন।

তিনি জানান, আঁখিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গত শুক্রবার ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন জানানো হয়। রোববার দুপুরে রিমান্ড আবেদনের উপর শুনানি অনুষ্ঠিত হয়। আদালতের বিচারক শুনানি শেষে পাঁচদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

এর আগে, গত বৃহস্পতিবার (৫ জানুয়ারি) ঢাকার ভাটারা থানা এলাকা থেকে আঁখিকে আটক করে পুলিশ। এরপর ৩০ অক্টোবর গৌরমন্দির ভাঙচুর মামলায় আঁখিকে গ্রেফতার দেখানো হয়। পরে গত শুক্রবার দুপুরে আঁখিকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন জানিয়ে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট সরাফ উদ্দিনের আদালতে পাঠায় পুলিশ। এদিন আদালতের কার্যক্রম বন্ধ থাকায় বিকেলে আঁখিকে কারাগারে পাঠানো হয়।

গত বছরের ২৯ অক্টোবর ফেসবুকে ‘ইসলাম অবমাননার’ ছবি পোস্ট করার অভিযোগে রসরাজ নামে এক জেলেকে গ্রেফতার করে পুলিশ। ঘটনার পর ৩০ অক্টোবর নাসিরনগরে ১৫টি মন্দিরসহ হিন্দুদের শতাধিক বাড়িতে অগ্নিসংযোগ, ভাংচুর ও লুটপাট চালানো হয়।

হামলার ঘটনায় স্থানীয় বারোয়ারি মন্দিরের পুরোহিতসহ দুই ব্যক্তি দুটি মামলা দায়ের করেন। প্রত্যেক মামলায় অজ্ঞাতনামা ১ হাজার থেকে ১২শ’ জনকে আসামি করা হয়।

হামলার ঘটনায় হরিপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আতিকুর রহমান আঁখির সম্পৃক্ততার বিষয়টি গণমাধ্যমে উঠে আসে।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/ আশা/ নীরব/এস আর/ ৮ই জানুয়ারী, ২০১৭