অনলাইন ডেস্ক : ভয়াবহ জঙ্গি হামলার পর বন্ধ হয়ে যাওয়া রাজধানীর গুলশানের হলি আর্টিজান বেকারি ফের নতুন ঠিকানায় চালু করা হয়েছে। ওই হামলার ৬ মাস পর গতকাল মঙ্গলবার গুলশান এভিনিউর র‌্যাংগস আর্কেডের দ্বিতীয় তলায় স্বল্প পরিসরে বেকারিটি চালু করা হয়। প্রতিষ্ঠানটির এক ব্যবস্থাপক এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে ব্যবস্থাপক জানান, আগে দুই হাজার বর্গফুট জায়গা নিয়ে ছিল হলি আর্টিজান বেকারি। সেখানে একসঙ্গে ৫০ জন অতিথি বসতে পারতেন। এখন ৫০০ বর্গফুট জায়গায় বেকারিটি চালু করা হয়েছে। নতুন স্থানে আপাতত ২০ জন বসতে পারবেন। তিনি বলেন, ‘খারাপ-ভালো সময় আসবে, এটাই ব্যবসার নীতি। আমাদের ব্যবসায়ও একটা খারাপ সময় এসেছে। সে অবস্থা থেকে আমরা ঘুরে দাঁড়ানোর চেষ্টা করছি।’ গুলশানে বেকারিটি চালুর পাশাপাশি কর্তৃপ রাজধানীর ধানমন্ডি এবং মতিঝিলেও শাখা খোলার চিন্তা করছে বলে জানান তিনি।

গত বছরের ১ জুলাই রাতে একদল জঙ্গি গুলশান-২-এর ৭৯ নম্বর সড়কের হলি আর্টিজান বেকারিতে ঢুকে ১৭ বিদেশিসহ ২১ জনকে হত্যা করে। পর দিন সকালে কমান্ডো অভিযানে ওই বেকারির নিয়ন্ত্রণ নেয় নিরাপত্তা বাহিনী। জঙ্গি হামলা ও কমান্ডো অভিযানের কারণে বেকারির সীমানা দেয়াল ও ভবনের বেশিরভাগ অংশ তিগ্রস্ত হয়। নষ্ট হয়ে যায় ভেতরে থাকা মালামাল। এর পর থেকে নিরাপত্তা বাহিনীর তৎপরতায় প্রতিষ্ঠানটি বন্ধ ছিল। সম্প্রতি প্রতিষ্ঠানটির ফেসবুক পেজে মঙ্গলবার (গতকাল) থেকে বেকারিটি নতুন ঠিকানায় খোলার ঘোষণা দেওয়া হয়। সে অনুপাতে গতকাল স্বল্প পরিসরেই এটি চালু করা হয়।

গতকাল দুপুরে গুলশান এভিনিউর র‌্যাংগস আর্কেডের দ্বিতীয় তলায় হলি আর্টিজান বেকারিতে গিয়ে সেখানকার কর্মীদের নতুন স্থানের সাজসজ্জা, খাবার পরিবেশনা ও গোছানোর কাজে ব্যস্ত থাকতে দেখা গেছে। নতুন ঠিকানায় প্রতিষ্ঠানটি চালু হওয়ার পর গতকাল অনেককেই সেখানে গিয়ে খাবার গ্রহণ করতে দেখা গেছে।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/ আশা/ নীরব/এস আর / ১১ জানুয়ারি, ২০১৭