রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের উপর পূর্ণ আস্থা রয়েছে জানিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, রাষ্ট্রপতি যে প্রস্তাব দেবেন সেটাই আমরা মেনে নেবো।

বুধবার (১১ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় ধানমন্ডিতে দলের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার রাজনৈতিক কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি।

সংবাদ সম্মেলনে ওবায়দুল কাদের বলেন, সংবিধানের ১১৮ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী রাষ্ট্রপতি নতুন নির্বাচন কমিশন গঠন করবেন বলে মত দিয়েছে আওয়ামী লীগ। একইসঙ্গে ‍আগামী নির্বাচনে ই-ভোটিং পদ্ধতি প্রবর্তনেরও প্রস্তাব করেছে।

নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে রাজনৈতিক দলগুলোর সঙ্গে সংলাপের অংশ হিসেবে বুধবার রাষ্ট্রপতির সঙ্গে আওয়ামী লীগ দেখা করে এ প্রস্তাব দিয়েছে।

কাদের জানান, আওয়ামী লীগের প্রস্তাবে বলা হয়, সংবিধানের ১১৮ অনুচ্ছেদের বিধান অনুযায়ী রাষ্ট্রপতি প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও অন্য নির্বাচন কমিশনারদের নিয়োগ করবেন। এক্ষেত্রে রাষ্ট্রপতি যেরূপ বিবেচনা করবেন সেই প্রক্রিয়ায় তিনি এ নিয়োগ দেবেন।

সুষ্ঠু, অবাধ ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য বর্তমানে বিরাজমান সব বিধি-বিধানের সঙ্গে জনমানুষের ভোটাধিকার অধিকতর সুনিশ্চিত করার স্বার্থে আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে ই-ভোটিংয়ের প্রবর্তনে জোর দেয় আওয়ামী লীগ।

এছাড়া নির্বাচন কমিশন গঠনে আইন প্রণয়ন বিষয়ে বিবেচনার প্রস্তাব করা হয়েছে বলেও জানান ওবায়দুল কাদের। বাংলানিউজ।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/ আশা/ নীরব/এস আর / ১১ জানুয়ারি, ২০১৭