টাইমস ওয়ার্ল্ড ডেস্ক: পৃথিবীর সবচেয়ে ভয়ংকর বিষাক্ত সাপের একটি ইস্টার্ন ব্রাউন অব অস্ট্রেলিয়া। এটি এক প্রাণঘাতী অস্ত্রের মতো।
এই তো সেদিন, ব্রিসবেনের গুডনায় লন্ড্রির কাজে ব্যস্ত ছিলেন এক নারী। তার কাছাকাছি এই সাপটিকে দেখে আঁতকে উঠলেন।

তবে ওই নারীর প্রতি আগ্রহ নেই তার। বিশালাকৃতি ইস্টার্ন ব্রাউন স্নেকটি (সিউডোনাজা টেক্সটিলিস) ব্যবস্ত অন্য একটি সাপকে নিয়ে। সে একটি প্রমাণ সাইজের কার্পেট পাইথনের ওপর হামলে পড়েছে এবং ওটাকে গিলতে শুরু করেছে। ঘটনার বয়ান দিলেন স্যালি হিলস। তিনি গত ২৬ বছর ধরে সাপ ধরার কাজ করে আসছেন। স্যালির সঙ্গে কাজ করেন ওই নারীর স্বামী নর্ম। তারা দুজনই এন অ্যান্ড এস স্নেকক্যাচার।

ইস্টার্ন  ব্রাউন স্নেকের নিউরোটক্সিক বিষ মাত্র ১৫ মিনিটের মধ্যে একজন মানুষকে খুন করতে পারে। যদি তাকে অ্যান্টিভেনম সময়মতো না দেওয়া হয়। ওই যুদ্ধে পাইথনটি পরাজিত হয়েছে ব্রাউনের শক্তিশালী বিষের কারণে। এরপর মৃত শত্রুকে অনায়াসে গিলতে শুরু করে বিজয়ী।

ঘটনাটি চোখে পড়তেই স্যালিকে দ্রুত চলে আসতে বলেন ওই নারী। দ্রুত চলে আসেন তিনি। এই চিত্র দেখে বোকা বনে যান তিনি। জানান, এত দিন ধরে সাপ নিয়ে সময় কাটাই। কিন্তু এমন দৃশ্য সত্যিই বিরল।

খাবার সাবাড় করার পর ব্রাউনকে ব্যাগে পুরলেন হিলস। এখানে সাপটি অনেক বেশি নিরপদ বোধ করবে। পেটের খাবারটিকে পুরোপুরি আয়ত্ত করার আগে পর্যন্ত ঘণ্টা তিনেক এখানেই থাকতে দিলেন সাপটিকে। প্রথমে হিলস ভেবেছিলেন, আদৌ সে পাইথনকে হজম করতে পারবে কিনা। কিন্তু অনায়াসে কাজটি করে ফেলেছে সে।

পরে ব্রাউনকে কয়েক মাইল দূরের বনাঞ্চলে ছেড়ে দেন হিলস। ঝোপঝাড়ের মাঝে স্বাবলীল ভঙ্গীতে হারিয়ে গেলো সে। অর্থাৎ, পাইথনকে গিলতে তার কোনো সমস্যা নেই।

এ ঘটনা বিরল হলেও অসম্ভব কিছু নয়। তবে ইস্টার্ন ব্রাউন সাপ যে সব সময় কার্পেট পাইথন নিধন করে খায় তা নয়। এরা সাধারণত ইঁদুর এবং পাখি ধরে খায়। অনেক সময়ে এদের নিজ প্রজাতির ছোট সাপ ধরেও খেতে দেখা যায়।

কুইন্সল্যান্ডের সাম্প্রতিক উষ্ণ আবহাওয়া ইস্টার্ন ব্রাউনের বসবাসের উপযোগী। এটা উষ্ণ তাপে আরো বেশি কর্মশীল হয়ে ওঠে। তাই এখানে সেখানে ঘুরে বেড়াতে শুরু করে তারা। আরেকজন একদিন অভিযোগ করলেন, তার গাড়ির নিয়ে ঘুমিয়ে রয়েছে আরেকটি ইস্টার্ন ব্রাউন। আরেকজন তো বালিশের নিচেই খুঁজে পেলেন একটাকে।

কার্পেট পাইথন (মোরেলিয়া স্পিলোটা) ১৩ ফুট পর্যন্ত লম্বা ও ৩৩ পাউন্ড পর্যন্ত ওজন হতে পারে। যদিও প্রাপ্তবয়স্ক সাপের গড় দৈর্ঘ্য সাড়ে ছয় ফুটের মতো হয়। অধিকাংশ সময় এরা গাছে গাছে কাটায়। সাধারণত নিশাচর প্রাণী। সূত্র: ন্যাশনাল জিওগ্রাফি

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/এস আর/নীরব/হায়াত/ ৪ঠা জানুয়ারী, ২০১৭