টাইমস ওয়ার্ল্ড ডেস্কঃ ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মধ্য কলকাতার ৫৪/এ আচার্য জগদীশ চন্দ্র বসু রোডে অবস্থিত ‘মিশনারি অফ চ্যারিটিজ’এর সদর কার্যালয়ে (মাদার হাউজ) বড়সড় হামলার পরিকল্পনা ছিল জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেটের (আইএস)। কয়েকদিন আগে কলকাতার ব্যঙ্কশাল আদালতে মুসার বিরুদ্ধে পেশ করা চার্জশিটে এমনটাই উল্লেখ করেছে এনআইএ।

এনআইএ সূত্রে খবর, কয়েক মাস আগে পশ্চিমবঙ্গ থেকে আইএস জঙ্গি সন্দেহে আটক মুসাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে এই চাঞ্চল্যকর তথ্য পেয়েছে ভারতের তদন্তকারী সংস্থা।

জেরায় মুসা স্বীকার করেছে তার প্রধান লক্ষ্য ছিল মাদার হাউজে আগত ব্রিটিশ, মার্কিন ও রাশিয়ান নাগরিকদের ওপর হামলা করা, যারা নিয়মিত ভাবে এই মাদার হাউজে আসতেন। এমনকি মুসা নিজেই এই হামলার ব্লু-প্রিন্ট তৈরি করেছিল বলেও জানতে পেরেছে তদন্তকারী গোয়েন্দারা। কারণ সিরিয়া ও লিবিয়ায় এই তিন শক্তির (ব্রিটিশ, মার্কিন, রাশিয়া) সঙ্গেই লড়াই করতে হচ্ছে আইএসকে। তাই এই তিন দেশের নাগরিকদের ওপর হামলা করে তার প্রতিশোধ নেওয়াই লক্ষ্য ছিল মুসার।

উল্লেখ্য গত ১ জুলাই ঢাকায় জঙ্গি হামলার পর ৪ জুলাই পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমান রেল স্টেশনে বিশ্বভারতী ফার্স্ট প্যাসেঞ্জার থেকে মুসা (২৫)-কে যৌথ ভাবে আটক করে ভারতের জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা এনআইএ ও পশ্চিমবঙ্গের গোয়েন্দা পুলিশ সিআইডি। মুসাকে জেরা করে ইসলামিক স্টেট (আইএস) ও জাতাম উল মুজাজিদিন বাংলাদেশ (জেএমবি)-এর সম্পৃক্ততার বিষয়টি জানতে পারে এনআইএ’এর গোয়েন্দারা।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/এস আই/নীরব/হায়াত/ ২৫ ডিসেম্বর,২০১৬