মানুষ সৃষ্টির সেরা জীব, মানুষ যেমন পৃথিবীর সেরা জীব তেমনি মানুষের বিবেক বুদ্ধি দিয়ে পৃথিবীকে করেছে জয়, পৃথিবীকে করছে শাসন। মানুষের প্রতিটি অঙ্গপ্রত্যঙ্গের মধ্যে মস্তিষ্ক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। আজ আমরা জানব মানুষের মস্তিষ্ক বা ব্রেন সম্পর্কে কয়েকটি মজার তথ্য…

১। মানুষের মস্তিকের প্রতি সেকেন্ডে ১০১৫ টি হিসাব করার ক্ষমতা আছে। একজন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষ প্রতিদিন প্রায় ৭০০০০ বিষয় নিয়ে চিন্তা করতে সক্ষম ।

২। মস্তিষ্কে ১০০বিলিয়ন নিউরন রয়েছে। মানুষের নিউরনে তথ্য চলাচলের সর্বনিম্ন গতিবেগ হলো প্রায় ২৫৮.৪৯০ মাইল/ঘণ্টা। মানব মস্তিষ্ক তথ্য আদান-প্রদান করতে পারে ন্যূনতম ০.৫ মিটার/সেকেন্ড থেকে সবচেয়ে বেশি ১২০ মিটার/সেকেন্ড পর্যন্ত। একশ মাইল লম্বা উপশিরা রয়েছে মস্তিষ্কে।

৩। হাতির মস্তিষ্ক মানুষের মস্তিষ্কের অপেক্ষা বৃহৎ হলেও হাতির মস্তিষ্ক তার দেহের ০.২৫ ভাগ যেখানে মানুষের মস্তিষ্ক তার দেহের ওজনের দুই ভাগ। এতে বোঝা যাচ্ছে মানুষের মস্তিষ্কই সবচেয়ে বড়। মানুষের মস্তিষ্ক অন্যান্য স্তন্যপায়ী প্রানীর চেয়ে প্রায় ৩ গুন বড়। এটি মানুষের দেহের মোট আয়তনের মাত্র ২% হলেও দেহে উৎপন্য মোট শক্তির ২০ ভাগেরও বেশী খরচ করে সে একাই।

৪। দেহের মোট অক্সিজেনের প্রায় ২০ ভাগ মস্তিষ্ক ব্যবহার করে থাকে। অক্সিজেনের মতো প্রায় ২০ ভাগ রক্তই মস্তিষ্ক আদান-প্রদান করে। মস্তিষ্কের ওজনের প্রায় দ্বিগুণ ওজন হচ্ছে মস্তিষ্কের আবরণ বা চামড়ার।

৫। মানব মস্তিস্কের প্রায় ৭৫ ভাগই পানি । শিশু অবস্থায় একটি মানুষের মস্তিস্কের ওজন থাকে ৩৫০-৪০০ গ্রাম। প্রাপ্তবয়স্ক অবস্থায় যা বেড়ে হয় ১৩০০-১৪০০ গ্রাম। জন্মের সময় থেকে মানব মস্তিষ্কপূর্ণাঙ্গ মানুষের মস্তিষ্কের আকৃতি নিয়ে আসে এবং মস্তিষ্কেরপ্রায় পূর্ণাঙ্গ কোষ নিয়েই আসে।

৬। মস্তিষ্ক ১৮ বছর বয়সের পর বৃদ্ধি হয় না। জাগ্রত থাকা অবস্থায় মস্তিস্ক প্রায় ৪০ ওয়াট পাওয়ার সৃষ্টি করে,যা একটি লাইট বাল্ব জালানোর জন্য যথেষ্ট। যখন আপনি জ্বরে আক্রান্ত হবেন তখন মনে রাখবেন মানুষের মস্তিষ্কের সর্বোচ্চ তাপ সহনীয় ক্ষমতা ১১৫.৭ ডিগ্রি ফারেনহাইট এবং ততক্ষণ পর্যন্ত মানুষ বাঁচতে পারে।

৭। যখন মানুষকে অত্যধিক চাপ সহ্য করতে হয় তখন মস্তিষ্কের কোষ, গঠন বা আকার এবং কাজ বাধাগ্রস্ত হয়। অক্সিটোক্সিন নামক হরমোন মস্তিষ্ক থেকে ক্ষরিত হয় এবং ভালোবাসা এবং আত্মসংবরণের জন্য দায়ী।

৮। যদি মস্তিষ্ক ৮ থেকে ২০ সেকেন্ড রক্ত না পায় তবে মানুষ জ্ঞান হারায়। তবে, মস্তিষ্কে ব্যথা সংগ্রাহক কোনো অঙ্গ নেই তাই মস্তিষ্ক কখনো ব্যথা অনুভব করে না। প্রাপ্তবয়স্ক মানুষের মস্তিষ্ক অক্সিজেন ছাড়া মাত্র ৫ মিনিট টিকতে পারবে। ৫ থেকে ১০ মিনিট অক্সিজেনের অভাবে থাকলে মস্তিষ্কের স্থায়ী সমস্যা দেখা দেয়।

৯। মানব শরীরের সব থেকে মেদবহুল অর্গান কোনটি? মস্তিষ্কের প্রায় ৬০% চর্বি দ্বারা তৈরী, স্বাস্থ্যবান শরীরে একক কোন অংগে চর্বির উপস্তিতির ভিত্তিতে মস্তিষ্কই সবার আগে। আর, মৃত্যুর ৫ মিনিটের মধ্যেই মস্তিষ্কের কোষগুলির মৃত্যু ঘটে।

১০। সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বিজ্ঞানী আলবার্ট আইনস্টাইনের মস্তিস্কের ভর ছিলো ১২৭৫ গ্রাম,যা স্বাভাবিকের চেয়ে অনেক কম

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/এস আর/এ এইচ/এ আর/৩১ জানুয়ারী, ২০১৭