এস আর এ হান্নান, মাগুরা : মাগুরার মহম্মদপুরের ইটভাটাগুলোতে কোটি টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। শুক্রবার রাত ও শনিবার সকালের কয়েকদফা বৃষ্টিতে উপজেলার ১৮/২০টি ভাটার অর্ধকোটি কাচা ইট নষ্ট হওয়ায় মালিকরা ওই অপূরণীয় ক্ষতির মুখে পড়েছেন। ভরা মৌসুমে প্রতিটি ভাটাতে ৫ থেকে ৯ লাখ টাকার ইট বৃষ্টিতে নষ্ট হয়ে গেছে।

শনিবার সকালে উপজেলার  বিভিন্ন ইটভাটা ঘুরে দেখাগেছে, দিগন্ত বিস্তৃত মাঠের কাচা ইট বৃষ্টিতে নষ্ট হয়ে গেছে। ব্রিকসফিল্ডে কাদাপানি জমে যাওয়ায় নতুন করে ইটও তৈরি করা সম্ভব হচ্ছেনা। বৈরি আবহাওয়া স্থায়ী হলে আরো ক্ষতির আশঙ্খা করছেন ভাটা মালিকরা। উপজেলায় ছোট বড়ো ১৮-২০টি ইটভাটা রয়েছে। বৃষ্টির কারণে সব ভাটারই লাখ লাখ কাচা ইট নষ্ট হয়ে গেছে। এসব ভাটাগুলোর অর্ধকোটিরও বেশি কাচা ইট নষ্ট হওয়ায় দিশেহারা হয়ে পড়ছেন মালিকরা।

উপজেলার ধোয়াইল রাফসা ব্রিকসের মালিক রবিউল ইসলাম বলেন, আকস্মিক বৃষ্টির কবলে পড়ে ১০ লক্ষাধিক টাকার কাচা ইট নষ্ট হয়ে গেছে।

গোপালপুর গ্রামে অবস্থিত আরব ব্রিকসের মালিক আলহাজ মেজবাহুল ইসলাম বলেন, সাধারণত: এই সময়ে বৃষ্টি হয়না, ফলে দুর্যোগ মোকাবেলার আগাম প্রস্তুতি এখনো পুরোপুরি নেওয়া হয়নি। বৃষ্টিতে তার প্রায় ৯ লাখ টাকার ক্ষতি হয়েছে বলেও তিনি জানান।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/হায়াত/নীরব/এস আর / ১১ মার্চ, ২০১৭