নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা: আগামী ১৫ দিনের মধ্যে সাভারের চামড়া শিল্প নগরীতে গ্যাস-বিদ্যুৎসহ সব ধরনের সংযোগ নিশ্চিত না করা হলে বিসিক কার্যালয় ঘেরাওয়ের হুমকি দিয়েছে চামড়া শিল্প সংশ্লিষ্ট ১৩টি সংগঠন।

সোমবার হাজারীবাগের ঢাকা ট্যানারি মোড়ে আয়োজিত চামড়া শিল্পে জড়িত মালিক-শ্রমিক-কর্মচারীদের মহাসমাবেশ থেকে এ ঘোষণা দেয়া হয়।

এসময় আদালতের নির্দেশনা অনুযায়ী সাভারের চামড়া নগরীতে সব সেবা নিশ্চিত না করা হলে পুনরায় আদালতের অনুমতিতে হাজারীবাগেই উৎপাদন চালু করার কথাও বলেন তারা।

সমাবেশ থেকে চামড়া শিল্পকে বাঁচাতে সরকারের কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণসহ ৯ দফা দাবি জানানো হয়।

দাবি বাস্তবায়ন না হলে চামড়া শিল্প সংশ্লিষ্টরা বিসিক অফিস ঘেরাওয়ের পাশাপাশি ১২ এপ্রিল ঢাকা ট্যানারি মোড় থেকে হাজারীবাগে কালো পতাকাসহ মৌন মিছিল ও ১৫ এপ্রিল চামড়া সেক্টর সংশ্লিষ্ট সব সংগঠনের নেতৃবৃন্দের মত বিনিময় সভা করা ঘোষণা দেন।

মহাসমাবেশে সাভারে চামড়া নগরীতে সকল সেবা নিশ্চিত না করে হাজারীবাগের গ্যাস-বিদ্যুতের সংযোগ কেটে দেয়াকে চামড়াশিল্প ধ্বংসের ষড়যন্ত্র হিসেবে উল্লেখ করছেন বক্তারা।

তাদের দাবি, সাভারের চামড়াশিল্প নগরী এখনো প্রস্তুত নয়। আদালতকে ভুল বোঝানো হয়েছে। ওই স্থান প্রস্তুত হওয়ার আগেই ভুল তথ্য দিয়ে সব সেবা সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়েছে।

f5edfad681ce6f3fa1f9c98c9f4d6912-58eb41a273fe8

বক্তারা বলেন, হাজারীবাগের ট্যানারি ভবনগুলোতে যেসব শ্রমিক বসবাস করেন, তাদের ঘরে এখন পানি নেই, গ্যাস নেই। তাই রান্না হচ্ছে না। বিদ্যুৎ না থাকায় এই গরমে তাদের জীবন দুর্বিষহ হয়ে পড়েছে।

সমাবেশে ট্যানারি ওয়ার্কার্স ইউনিয়ন, বাংলাদেশ লেদার অ্যান্ড লেদার গুডস ম্যানুফ্যাকচারিং কো-অপারেটিভ সোসাইটি লিমিটেড, বাংলাদেশ কেমিক্যাল ইমপোর্টার্স অ্যান্ড মার্চেন্ট অ্যাসোসিয়েশন, বাংলাদেশ চামড়া রফতানিকারক সমিতি, লেদার কেমিকেল ব্যবসায়ী সমবায় সমিতি, সমাজতান্ত্রিক চামড়া শিল্প শ্রমিক জোট,লেদার ইঞ্জিনিয়ার্স অ্যান্ড টেকনোলোজি সোসাইটি বাংলাদেশ, বাংলাদেশ লেদার সিলেক্টর অ্যাসোসিয়েশন,স্পিলিট চামড়া ব্যবসায়ী বহুমুখী সমবায় সমিতি, বাংলাদেশ হাইড অ্যান্ড স্কিন মার্চেন্টস অ্যাসোসিয়েশন, হাজারীবাগ ঠেলাগাড়ি লেবার বহুমুখী সমবায় সমিতিসহ বিভিন্ন সংগঠনের সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য, গত ৮ এপ্রিল রাজধানীর হাজারীবাগের সব ট্যানারির বিদ্যুৎ, পানি ও গ্যাসের সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার কাজ শেষ করে পরিবেশ অধিদফতর। অভিযানে ২২৪টি বিদ্যুৎ-সংযোগ, ৫৪টি গ্যাসের সংযোগ ও ১৯৩টি পানির সংযোগ বিচ্ছিন্ন করা হয়।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/এস আর/কামরুল/নীরব/ ১০ এপ্রিল ২০১৭