জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম সমাবর্তন ১৯ এপ্রিল (বুধবার) বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ সমাবর্তনে শিক্ষার্থীদের হাতে সনদ তুলে দেন।

সর্বোচ্চ সিজিপিএর ভিত্তিতে স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর পর্যায়ে কলা, বিজ্ঞান, সামাজিক বিজ্ঞান এবং ইঞ্জিনিয়ারিং অনুষদের অধীনে বিভিন্ন বিভাগ থেকে ২৯ জন শিক্ষার্থীর হাতে ৩২ টি স্বর্ণপদক তুলে দেন বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য।

বুধবার জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম সমার্বতনে বিশ্ববিদ্যালয়ের চ্যান্সেলর ও গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি মোঃ আব্দুল হামিদ বলেন, বাংলাদেশ আজ সমৃদ্ধির সোপানে এগিয়ে যাচ্ছে। দেশ আজ নিন্ম আয়ের স্তর থেকে নিন্ম মধ্য আয়ের কাতারে উন্নীত হয়েছে। পদ্ধা সেতু আজ কল্পনা নয়। বর্তমান সরকার যুদ্ধাপরাধীর বিচার, বঙ্গবন্ধু হত্যার বিচার, জঙ্গিবাদ দমন, ক্ষুধা দারিদ্র দুরীকরণসহ আর্থসামাজিক ক্ষেত্রে কার্যকরী ভুমিকা পালন করেছে।

অনুষ্ঠানের শুরুতে ধর্মীয় গ্রন্থ থেকে পাঠশেষে বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গীত বিভাগের পরিবেশনায় নৃত্যসহ সূচনাসঙ্গীতের পরে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহীত উল আলম। সমাবর্তন বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন ইমেরিটাস প্রফেসর ড. রফিকুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন ইউজিসি চেয়ারম্যান প্রফেসর আবদুল মান্নান।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম সমাবর্তনে ১হাজার ৩শত ৯৯ জন গ্র্যাজুয়েট অংশগ্রহন। উল্লেখ্য, ২০০৬ সালের ৯ মে  দুখু মিয়ার স্মৃতি বিজড়িত ময়মনসিংহ শহরের অদূরে ত্রিশালে প্রতিষ্ঠা করা হয় জাতীয় কবি কাজী নজরুল ইসলাম বিশ্ববিদ্যালয়। এ শিক্ষালয়টি দেখতে দেখতে ১১ বছরে পা রাখলো। বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার পর ২০১৭ সনেই প্রথম সমাবর্তন অনুষ্ঠিত হলো।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/এস আর/নীরব/কামরুল/ ২০ এপ্রিল ২০১৭