ইফতেখার আলম, বগুড়া : বগুড়ার শেরপুরে গভীর রাতে যাত্রীবাহী একটি বাস মহাসড়কের পাশে খাদে পড়ে তিনজন নিহত ও আহত হয়েছে অন্তত ১৫ জন যাত্রী।

ঢাকা-উত্তরাঞ্চল মহাসড়কের উপজেলার সীমাবাড়ীর বগুড়া বাজার এলাকায় রাত পৌণে একটায় এই দুর্ঘটনায় ঘটে। এসময় মহাসড়কে যানজটের সৃষ্টি হয়। পুলিশের তৎপরতায় আধাঘণ্টা পর মহাসড়কে যানবাহন চলাচল স্বাভাবিক হয়। ওইরাতে নিউ সাফা স্পেশাল পরিবহনের রাসেল-রাব্বি নামে এই বাসটি ওইরাতে গাইবান্ধার সাঘাটা থেকে নারায়নগঞ্জে যাচ্ছিল।

দুর্ঘটনার পর বাসের যাত্রীদের চিৎকারে উদ্ধারে এগিয়ে আসেন স্থানীয় মানবাধিকার ও পরিবেশবাদী সংগঠনের কর্মীরাসহ দুর্ঘটনাস্থলের পাশের লোকজন। সংবাদ পেয়ে শেরপুর ও সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জ ফায়ারসার্ভিসের দুইটি ইউনিট ও শেরপুর থানা পুলিশ আহতদের উদ্ধার করেন। উদ্ধারের পর আহতদের স্থানীয়ভাবে এবং শেরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নেওয়া হয়।

শেরপুর উপজেলা ফায়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা মো. সোহেল রানা জানান, বাসের ভিতরে চাপা পড়ে থাকা অবস্থায় নিহতদের উদ্ধার করা হয়েছে।
দুর্ঘটনায় বাসের মধ্যে চাপা পড়ে নিহতরা হলেন, গাইবান্ধার সাঘাটা থানার খেওয়ারঘাট গ্রামের সাইদুল ইসলাম (৩০) ও একই থানার মন্ডলপাড়া গ্রামের তারেক (২৭) ও আবদুল করিম (৪৫)।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, বাসটির চালক সামনে থাকা অপর একটি পাথর বোঝাই ট্রাককে দ্রুত গতিতে অভারটেক করতে গেলে বাসের চালক নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে মহাসড়কের ডানপাশে খাদে পড়ে যায়।

শেরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) খান মো. এরফান জানান, এই দুর্ঘটনায় নিহত ও আহত সকলেই ওই বাসের যাত্রী ছিলেন। বাসটি পুলিশের নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। এঘটনায় থানায় আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণের প্রক্রিয়া চলছে।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/নীরব/এ আর/হায়াত/ ১৭ এপ্রিল ২০১৭