টাইমস ওয়ার্ল্ড ডেস্ক: ফেসবুকের বিরুদ্ধে জরিমানার হুমকি দিয়ে জার্মানি জানিয়েছে ফেসবুক এবং অন্যান্য সোশাল মিডিয়া প্রতিটি ভুল খবর প্রকাশ করার জন্য ৫ লাখ ইউরো করে জরিমানার শিকার হতে পারে। আর এর জন্য প্রয়োজনীয় আইন প্রণয়নের প্রস্তাবও করেছে জার্মানি।

সম্প্রতি মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের সময় মিথ্যা খবর প্রচার করে বিপাকে পড়েছে ফেসবুক। যদিও এ সমস্যা কাটিয়ে উঠতে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার ঘোষণা দিয়ে সবাই আশ্বস্ত করেছিলেন ফেসবুকের কর্ণধার মার্ক জাকারবার্গ। তবে জাকারবার্গের কথায় জার্মানি আশ্বস্ত হতে পারেনি।

এক সাক্ষাৎকারে সোশাল ডেমোক্রেটিক পার্টির পার্লামেন্টারি চেয়ারম্যান থমাস অপারমান এমন হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেন। তিনি বলেন, ফেসবুক ভুয়া খবর প্রচারের বিষয়টি নিয়ন্ত্রণে কোনো কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের সুযোগটি নিচ্ছে না। জার্মানিতে ফেসবুকের ভুয়া খবর প্রচারের বিষয়টি নজরদারি করতে একটি আইন সংস্থা বসানো হবে। এরা ২৪ ঘণ্টা এসব খবরে নজর রাখবে।

অভিযোগ ওঠে এমন খবর ২৪ ঘণ্টার মধ্যে না সরালে ফেসবুককে ৫ লাখ ইউরো জরিমানা করা হবে। ফেসবুকে মূলত ব্যবহারকারীদের পোস্ট আসে। কাজেই যে মিথ্যা খবর প্রচার করবে, জরিমানা তার ওপর দিয়ে যাওয়াটাই স্বাভাবিক- এমন যুক্তি উঠতেই পারে। এ ছাড়া জার্মানির কেউ যদি এমন ভুয়া খবর প্রচার করেন, তবে তার শাস্তিতে দেশটি কোনো ব্যবস্থা নেবে কিনা তাও দেখার বিষয়।

তবে ফেসবুকের জন্য জরিমানার বিষয়টি নিয়ে বিশেষজ্ঞরা তেমন কিছু বলেননি। অবশ্য ১.৭৫ বিলিয়ন ফেসবুক ব্যবহারকারীদের মধ্যে ভুয়া খবর প্রচার হয়ে যাওয়া ঠেকানোটা কঠিন হয়ে পড়বে। ফেসবুক আমেরিকান কম্পানি।

এদের কাছ থেকে জার্মানি কি প্রক্রিয়ায় জরিমানা তুলবে তা এখনো বোঝা যাচ্ছে না। হতে পারে দেশটিতে ফেসবুক বন্ধ হয়ে যেতে পারে। জার্মানিতে ৩৬.৮ মিলিয়ন ফেসবুক ব্যবহারকারী রয়েছে। যদি মিথ্যা খবরের কারণে জার্মানি ফেসবুক বন্ধ করে দেয়, তো ব্যবহারকারীদের বড় একটি অংশ হারাবেন জাকারবার্গ।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/ হায়াত/ আশা/এস এস/ ৩রা জানুয়ারী, ২০১৭