হাজারীবাগে থাকা ট্যানারিগুলোর জরিমানা হিসেবে বকেয়া ৩০ কোটি ৮৫ লাখ টাকা পরিশোধ করতে হাইকোর্টের দেওয়া আদেশ স্থগিত করেছেন চেম্বার বিচারপতি। আগামী বৃহস্পতিবার (২৩ মার্চ) পর্যন্ত হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত করে ওই দিন বিষয়টি আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে শুনানির জন্য পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

হাইকোর্টের আদেশ স্থগিত চেয়ে বাংলাদেশ ট্যানার্স অ্যাসোসিয়েশন ও ফিনিশড লেদার গুডস অ্যান্ড ফুটওয়্যার এক্সপোর্টার্স অ্যাসোসিয়েশন আবেদনটি করে। আজ রোববার আদালতে ট্যানারি সংগঠনের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী শেখ ফজলে নূর তাপস ও আইনজীবী মোহাম্মদ মেহেদী হাসান চৌধুরী।

পরে মেহেদী হাসান চৌধুরী বলেন, জরিমানা হিসেবে বকেয়া পরিশোধ করতে হাইকোর্ট যে নির্দেশ দিয়েছিলেন, তা বৃহস্পতিবার পর্যন্ত স্থগিত করা হয়েছে। একই সঙ্গে বিষয়টি শুনানির জন্য আপিল বিভাগের নিয়মিত বেঞ্চে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

এর আগে গত ২ মার্চ পরিবেশ দূষণের দায়ে ১৫৪ ট্যানারিকে রাষ্ট্রীয় কোষাগারে ৩০ কোটি ৮৫ লাখ টাকা জমা দেওয়ার নির্দেশ দেয় হাইকোর্ট। আগামী দুই সপ্তাহের মধ্যে তাদের এই বকেয়া টাকা জমা দিতে বলা হয়। সে সময় আদালত জানান, এই সময়ের মধ্যে অর্থ পরিশোধে ট্যানারি মালিকেরা ব্যর্থ হলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে। পরে গত ৬ মার্চ রাজধানীর হাজারীবাগ ছাড়তে ব্যর্থ ট্যানারিগুলোকে অবিলম্বে বন্ধ করে দেওয়ার নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে আইন অনুসারে এসব ট্যানারির বিদ্যুৎ, গ্যাস ও পানির সংযোগ বিচ্ছিন্ন করার নির্দেশও দেওয়া হয়। বাংলাদেশ পরিবেশ আইনবিদ সমিতির (বেলা) করা এক আবেদনের শুনানি নিয়ে এই আদেশ দেন হাইকোর্ট। তা পালন করতে বলা হয়েছে পরিবেশ অধিদপ্তরের মহাপরিচালককে।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/নীরব/হায়াত/এস আর/ ১৯ মার্চ ২০১৭