মোট দেশজ উৎপাদনের (জিডিপি) প্রবৃদ্ধির হার নিয়ে সরকার মিথ্যাচার করছে বলে অভিযোগ করেছে বিএনপি। আজ সোমবার রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিদ সংবাদ সম্মেলনে এ অভিযোগ করেন বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী।

রিজভী অভিযোগ করেন, ‘বর্তমান ভোটারবিহীন সরকার অর্থনীতিকে বারোটা বাজিয়ে দেশের প্রবৃদ্ধি নিয়ে এখন চরম মিথ্যাচার করছে। গতকাল এনইসি বৈঠক পরবর্তী সংবাদ সম্মেলনে পরিকল্পনামন্ত্রী দাবি করেন বর্তমান অর্থবছরে প্রবৃদ্ধি হবে ৭ দশমিক ২৪ শতাংশ। অথচ গতকালই বিশ্বব্যাংক পূর্বাভাস দিয়েছে-বর্তমান অর্থবছরে প্রবৃদ্ধি হতে পারে সর্বোচ্চ ৬ দশমিক ৮ শতাংশ।’

বিএনপির অভিযোগ, ‘বাস্তবে বাংলাদেশের অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধি বিশ্বব্যাংকের পূর্বাভাস থেকেও আরো কম। কারণ ভোটারবিহীন সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকেই লুটপাটের মাধ্যমে আর্থিক খাতকে ধ্বংস করে দিয়েছে। রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোর মূলধনও বর্তমান শাসকগোষ্ঠী খেয়ে ফেলেছে। আস্থার সংকটে বর্তমানে আর্থিক খাতে দেশি-বিদেশি বিনিয়োগ প্রায় শূন্যের কোঠায়। প্রবাসীদের পাঠানোর রেমিটেন্সের পরিমাণ ক্রমান্বয়ে হ্রাস পাচ্ছে।’

বিএনপি নেতা রিজভী বলেন, ‘বর্তমানে ভয়াবহ দুঃশাসনে বিনিয়োগবান্ধব পরিবেশ না থাকায় পোশাক রপ্তানি খাত অনিশ্চয়তার দিকে ধাবিত হচ্ছে। এরই মধ্যে লুটপাটের কয়েক লাখ কোটি টাকা পাচার হয়ে যাওয়ার খবরে বিনিয়োগকারীরা আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন। সুতরাং গতকাল সরকারের তরফ থেকে প্রবৃদ্ধি নিয়ে যে পরিসংখ্যান দেওয়া হয়েছে সেটি বর্তমান শাসকগোষ্ঠীর মিথ্যাচারেরই একটি অংশ। সুতরাং নির্বাচনের প্রাক্কালে প্রবৃদ্ধি নিয়ে ক্ষমতাসীনদের যে বক্তব্য প্রকাশিত হয়েছে এর সঙ্গে বাস্তবতার কোনো মিল নেই।’

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/এস আর/কে আই/নীরব/ ১৪ মে ২০১৭