আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযানে জঙ্গিদের সক্ষমতা কমলেও বিচ্ছিন্ন হামলার আশঙ্কা এখনো আছে। তাদের আচমকা হামলা চেষ্টার আশঙ্কা উড়িয়ে দেয়া যায় না। জানালেন ডিএমপি কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান।

সোমবার সকালে ডিএমপি হেডকোয়ার্টারে গুলশান হামলায় নিহতদের মধ্যে অনুদান দেয়া শেষে তিনি এ কথা বলেন।

মো. আছাদুজ্জামান বলেন, সরকার এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনী জঙ্গি দমনের বিষয়ে জিরো টলারেন্স নীতি গ্রহণ করেছে। জঙ্গিবাদের সঙ্গে জড়িত কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।

তিনি বলেন, গুলশানের হলি আর্টিসানে হামলার সঙ্গে জড়িত কয়েকজন জঙ্গিকে শনাক্ত করা বাকি আছে। তাদের শনাক্তকরে মামলার পুরো প্রক্রিয়া শেষ করে অভিযোগপত্র দেয়া হবে।

ডিএমপি কমিশনার বলেন, জঙ্গি বিরোধী অভিযানের সময় যেন কোনো সাধারণ মানুষ হয়রানির শিকার না হয় সে বিষয়ে পুলিশকে নির্দেশ দেয়া হয়েছে। জন নিরাপত্তা যাতে বিঘ্ন না ঘটে সে বিষয়ে পুলিশের বিশেষ নজর থাকবে।

গেলো বছরের ১ জুলাই গুলশানের হলি আর্টিসানে হামলা করে জঙ্গিরা। ভয়াবহ সেই হামলায় মারা যান ১৭ বিদেশি, ২ পুলিশ অফিসারসহ ২২ জন। পরের দিন কমান্ডো অভিযানে নিহত হয় ৫ জঙ্গি। এর ৭ দিন পর জঙ্গিরা ফের হামলা করে দেশের সবচেয়ে বড় ঈদ জামাত শোলাকিয়ায়। সেই হামলায় নিহত হয় ২ পুলিশসহ ৪জন। এরপর জঙ্গি দমনে শক্ত অবস্থান নিয়ে মাঠে নামে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। তারা কয়েকটি জঙ্গি আস্তানায় সফল অভিযান পরিচালনা করেন।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/ আশা/ নীরব/এস আর/ ৯ ই জানুয়ারী, ২০১৭