খাবার সংকটে রয়েছে মাদারীপুরের অসংখ্য বানর। এক সময় বানরের জন্য খাবার সরবরাহ কর্মসূচি চালু থাকলেও তা বন্ধ হয়ে যাওয়ায় বানরগুলো লোকালয়ে হানা দিচ্ছে।

আড়িয়াল খাঁ নদীবেষ্টিত মাদারীপুর অঞ্চল এক সময় প্রচুর বন-জঙ্গল ছিল। সহায়ক পরিবেশ থাকায় মাদারীপুরের চরমুগরিয়া, কুলপদ্বি এবং পুরানবাজার এলাকায় প্রচুর বানর ছিল। বানরগুলোকে চরমুগরিয়া বন্দরের কালীবাড়ি, স্বর্ণকারপট্টি, জেটিসি, আদমজী, চাল আড়ত ও চৌরাস্তা এলাকায় বেশি দেখা যায়।

শুধু চরমুগরিয়া এলাকাতেই খাদ্য সংকট নিয়ে আড়াই হাজার বানর কোনোমতে টিকে আছে।

সামাজিক বন বিভাগ ফরিদপুরের তত্ত্বাবধানে এক সময় বানরের জন্য খাবার সরবরাহ কর্মসূচি চালু থাকলেও বর্তমানে তা বন্ধ রয়েছে। খাদ্য সরবরাহ বন্ধ থাকায় বানরগুলো বিভিন্ন বাসা-বাড়িতে হানা দিচ্ছে।

মাদারীপুরের সামাজিক বনায়ন জোনের সহকারী বনরক্ষক দীপক রঞ্জন সাহা বলেন, বানরের খাদ্য সরবরাহের জন্য আপ্রাণ চেষ্টা চালানো হচ্ছে। এ ব্যাপারে বাংলাদেশের প্রধান বনসংরক্ষক, যশোরের বনসংরক্ষক এবং বিভাগীয় বন কর্মকর্তাবৃন্দ খুবই তৎপর বলে জানান তিনি।

শুধু খাবার বরাদ্দই নয় নির্দিষ্ট একটি জায়গায় অভয়ারণ্য তৈরি করে বানরগুলো স্থানান্তরের দাবি স্থানীয়দের।