ওয়াসিম আকরামের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেছেন করাচির স্থানীয় আদালত। একটি মামলার বাদি হিসেবে ৩১টি শুনানিতে হাজির না হওয়ায় তার বিরুদ্ধে এই পারোয়ানা জারি করলেন আদালত। অবশ্য এটি জামিনযোগ্য গ্রেপ্তারি পরোয়ানা। পাকিস্তানের সাবেক অধিনায়ক ও পেস বোলার ওয়াসিম আকরাম গত বছর আদালতে একটি মামলা করেন। করাচির রাস্তায় অবসরপ্রাপ্ত এক সেনা কর্মকর্তার গাড়ি আকরামের গাড়িকে ধাক্কা দেয়। এতে দু’জনের মধ্যে তখন বেশ বচসা হয়।

এক পর্যায়ে সাবেক ওই সেনা কর্মকর্তা পিস্তল বের করে আকরামকে গুলি করার হুমকি দেন। তারই প্রেক্ষিতে করাচির আদালতে বাদি হয়ে মামলা করেন আকরাম। অবশ্য পরে আকরামকে চিনতে পেরে নিজের কৃতকর্মের জন্য ক্ষমা চান ওই কর্মকর্তা। বিষয়টি নিয়ে দুই পক্ষের মধ্যে সমঝোতা হয়। এতে বাদি আকরাম কিংবা বিবাদী ওই সাবেক সেনা কর্মকর্তার কেউ আদালতের শুনানিতে হাজির হননি।

কিন্তু আইন চলে তার নিজের গতিতে। বিষয়টি দুই পক্ষ সমঝোতা করলেও আদালতকে সে ব্যাপারে কিছু জানানো হয়নি। ওয়াসিম আকরামকে আদালতের শুনানিতে হাজির হওয়ার জন্য বারবার নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এমন কি এ ব্যাপারে পুলশকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনাও দেয়া হয়েছে। কিন্তু ওয়াসিম আকরাম সম্ভবত এখন পাকিস্তানে নেই। অস্ট্রেলিয়া-পাকিস্তানের মধ্যকার টেস্ট সিরিজে ধারাভাষ্য দেয়ার জন্য সম্ভবত তিনি অস্ট্রেলিয়ায়।

টাইমস ওয়ার্ল্ড ২৪ ডটকম/ এস আর/ নীরব/ এ আর/ ১১ জানুয়ারী, ২০১৭